পা ফাটা দূর করার সহজ উপায়

পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় - আসসালামু আলাইকুম। প্রিয় পাঠক, আপনি কি পা ফাটা দূর করার উপায় সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে আর চিন্তা না করে আজকের এই পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় পোস্টটি শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ুন। কারণ আজকের পর্বটি আপনাদের জন্য পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় বিস্তারিতভাবে সকল তথ্য নিয়ে সাজিয়েছি। শীতকাল কিংবা গরম কাল এ দুটি সময়ে পা ফাটার মত সমস্যায় অনেকেই ভুগে থাকেন। কিন্তু শীতকালে পা বেশি ফেটে থাকে। যদি আমাদের এই আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়েন। তাহলে আজকের এই পোস্টটি থেকে আপনি পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় সম্পর্কে জানতে পারবেন।

পা ফাটা দূর করার সহজ উপায়

আপনারা যারা আজকের পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় পোস্টটি পড়ছেন। তাদের জন্য আমাদের আজকের এই পর্বে থাকছে, পা ফাটার কারণ, পা ফেটে গেলে করণীয়, পা ফাটা দূর করার উপায়, পা ফাটা দূর করার ওষুধ, হাত পা ফাটা দূর করার উপায়, পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়, পা ফাটা দূর করার ক্রিম বাংলাদেশ, পা ফাটা দূর করার ক্রিমের দাম, পায়ের গোড়ালি ফাটার ক্রিম, পা ফাটা দূর করার, পা ফাটা দূর করার ক্রিম বিস্তারিত সকল তথ্য সম্পর্কে আপনাদের সুবিধার্থে নিচে আলোচনা করা হলো।

পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় ভূমিকাঃ

পা ফাটা একটি বড় ধরনের সমস্যা। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে স্বাস্থ্য সচেতনার ক্ষেত্রে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকি। তার মধ্যে একটি বড় সমস্যা হল পা ফাটা। সাধারণত পা ফেটে গেলে বা পায়ের গোড়ালি ফেটে গেলে সেখানে অনেক ব্যাথা জনিত অনুভূতি সৃষ্টি হয়। 

বর্তমানে অনেক মানুষ আছে যারা পা ফাটার সমস্যায় ভোগে থাকে। আপনি যদি পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় সম্পর্কে জানতে চান। এবং আপনার যদি পা ফাটা সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চান। তাহলে আমাদের আজকের এই পোস্টটি পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় জানতে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

পা ফাটার কারণ

পা ফাটার কারণঃ পা ফাটার কারণে পায়ের ত্বকে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে। আপনি যদি পা হাটার কারণ সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য। পা ফাটার অন্যতম একটি কারণ হলো ভিটামিনের অভাব। ভিটামিন বি এবং ভিটামিন সি শরীরের ত্বকের যত্নে অনেক প্রয়োজন। আমাদের শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন না থাকার ফলে আমাদের পায়ের ত্বকে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। এর মধ্যে অন্যতম একটি কারণ হলো পায়ের গোড়ালি ফেটে যাওয়া। আবার বেশিক্ষণ খালি পায়ে চলাফেরা করলে পায়ের গোড়ালি ফেটে যেতে পারে। পায়ের গোড়ালি ফেটে যাওয়ার অন্যতম একটি কারণ হচ্ছে বেশি শক্ত জাতীয়তা ব্যবহার করা।

অনেক গবেষণায় দেখা গেছে যে, খেতে খামারে যারা কাজ করে তাদের অতিরিক্ত পা ঘামে এবং ধুলোবালিতে বসবাস করে তাদের বেশিরভাগ মানুষের পা ফাটা সমস্যা বেশি হয়ে থাকে। আর তাই যারা খেতে খামারে কাজ করেন অথবা বেশি হাঁটাহাঁটি করেন। তারা পা ফাটা জনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে অবশ্যই নরম জুতা ব্যবহার করতে হবে।

পা ফেটে গেলে করণীয়

পা ফেটে গেলে করণীয়ঃ পাঠক আপনি কি পা ফাটার সমস্যায় ভুগছেন। তাহলে আপনার জন্য আমাদের পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় এই আর্টিকেলটিতে এখন আপনাদের জন্য থাকছে পা ফেটে গেলে করণীয় কি। যাইহোক, আর কথা না বাড়িয়ে পা ফেটে গেলে করণীয় জেনে নিন।

  • যদি কোন সময় আপনার পা ফেটে চামড়া উঠে আসে। তাহলে অবশ্যই আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে পায়ে চামড়া যেন টেনে না তোলা হয়।
  • চামড়া উঠার ক্ষতস্থানে লোশন ব্যবহার করার আগে বা ভেসলিন ব্যবহার করার আগে পায়ের ঘোরানোর মরা কোষ ঘষে তুলে ফেলতে হবে। তারপর যেকোনো ওষুধ বা ভেসলিন বা লোশন ব্যবহার করতে পারবেন।
  • এছাড়া আপনি চাইলে প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে অলিভ অয়েল তেল ফাটা স্থানে দিয়ে মেসেজ করতে পারেন।
  • আমরা অনেক সময় খালি পাই হেঁটে থাকি। এই বাজে অভ্যাসটা আমাদের ত্যাগ করতে হবে। পায়ের ফাটা দূর করার জন্য আমাদের সব সময় পায় সেন্ডেল অথবা জুতা ব্যবহার করতে হবে।

পা ফাটা দূর করার উপায় - পা ফাটা দূর করার সহজ উপায়

পা ফাটা দূর করার উপায় ও পা ফাটা দূর করার সহজ উপায়ঃ আমাদের জীবনে চলার পথে আমরা অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। আমাদের সকলেরই যে সমস্যায় বেশি ভুগে থাকে তার মধ্যে একটি সমস্যা হল পা ফাটা। পা কেটে গেলে বা পায়ের গোড়ালি ফেটে গেলে যেখানে ক্ষত তৈরি হয় সেখানে আমরা ব্যথা অনুভব করে থাকি। 

যদি আপনার পা ফাটা সমস্যা থাকে এবং পা ফাটা সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চান তাহলে আপনার জন্য আমাদের আজকের এই পর্বটি সহজে পা ফাটা দূর করার উপায়। আপনি চাইলে ঘরোয়া উপায়ে আপনার পা হাঁটা সমস্যা দূর করতে পারেন। এর জন্য আপনার প্রয়োজন হবে পেঁয়াজ। পেঁয়াজের মাধ্যমে আপনি আপনার পা ফাটার সমস্যা দূর করতে পারবেন।

পেঁয়াজ ব্রেন্ডারে পেস্ট করে তার সাথে এক চামচ মধু ও অলিভয়েলে তেল একসাথে মিক্স করে আপনার পায়ের ফাটা স্থানে ব্যবহার করুন। ২০ থেকে ২৫ মিনিট মেসেজ করার পর তা ধুয়ে ফেলুন। এক সপ্তাহের মধ্যে আপনি এর ফলাফল দেখতে পাবেন। এতে করে আপনি খুব সহজ উপায়ে পা ফাটা দূর করতে পারবেন।

হাত পা ফাটা দূর করার উপায়

হাত পা ফাটা দূর করার উপায়ঃ আপনি যদি হাত পা ফাটা দূর করার উপায় সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আপনার জন্য আমাদের আজকের এই আর্টিকেল। কারণ আপনি এই পর্বটি পড়লে জানতে পারবেন হাত পা ফাটা দূর করার উপায় সম্পর্কে। তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক, হাত পা ফাটা দূর করার উপায় কি। শীতের সময় এবং গরমের সময় আমাদের পা ফাটা জনিত সমস্যায় বেশি দেখা যায়।

কারন আমাদের অবহেলা ও সঠিক যত্নের অভাবে আমাদের অনেকেরই হাত-পা ফেটে যায়। এ থেকে বাঁচার জন্য আমাদের শীতের শুরু থেকেই মায়েশ্চারাইজার এবার শুরু করা উচিত তাহলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে হাত পা ফাটা থেকে রক্ষা পাবেন। আবার দেখা যায় অনেক সময় গরমে রোদ আমাদের ত্বকের বেশি ক্ষতি করে। বাহিরে বেরোনোর সময় কোনভাবেই সানস্ক্রিন লোশন ব্যবহার করতে ভুলবেন না। শরীরে অন্যান্য ত্বকের মতো শীতকালে হাঁটু, গোড়ালি একটু বেশি ফেটে থাকে সে ক্ষেত্রে গ্লিসারিন ব্যবহার করা খুবই জরুরী। আপনি চাইলে গরমে গ্লিসাইনে টি ব্যবহার করতে পারেন। আপনার হাত-পা ফাটা থেকে রক্ষার জন্য গ্লিসারিন অনেক ভালো একটি উপায়।

পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়

পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়ঃ আপনারা যারা পা ফাটা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগছেন। তাদের জন্য আজকে আমাদের এই পর্বটি। আপনার যদি পা হাঁটার সমস্যা থেকে থাকে তাহলে আপনি আমাদের আজকের এই পরবর্তী মনোযোগ সহকারে পড়ুন। কারণে আপনাদের জন্য থাকছে পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়জেনে নিন

  • পেঁয়াজ বাটা বা ব্লেন্ডার পেস্ট করা সাথে এক চামচ মত ও অলিভারের তেল মিশিয়ে পায়ে ব্যাবহার করতে পারেন।
  • প্রতিদিন বিশ থেকে ৩০ মিনিট হালকা গরম পানিতে ডাব শ্যাম্পু মিশিয়ে পায়ের ফাটা স্থানে লাগাতে পারেন।
  • তাছাড়াও আপনি চাইলে আপেল ফলের পেস্ট সাথে মধু দিয়ে প্যাক বানিয়ে পায়ের ফাটা স্থানে ব্যবহার করতে পারেন।
  • তাছাড়া গরম পানিতে অলিভ অয়েল তেল অগ্নিসার মিশিয়ে পায়ের ফাটা স্থানে ব্যবহার করতে পারেন।
  • এরপর আপনার ঘরে থাকা তিলের তেলের সঙ্গে এক চামচ মধু মিশিয়ে ফাটা স্থানের ব্যবহার করতে পারেন হাত ও পা ফাটা দূর করার জন্য।

পা ফাটা দূর করার ক্রিম বাংলাদেশ - পা ফাটা দূর করার ক্রিম - পা ফাটা দূর করার ঔষুধ

পা ফাটা দূর করার ক্রিম বাংলাদেশঃ আমরা যারা পা ফাটার সমস্যা নেই বিভ্রান্তির মধ্যে রয়েছি। তারা অনেকেই পা ফাটা দূর করার ক্রিম বাংলাদেশ লিখে গুগলে সার্চ করে থাকেন। তাদের কাঙ্খিত উত্তরটি পাওয়ার জন্য। তাদের জন্য আমাদের আজকের আর্টিকেলে পা ফাটা দূর করার ক্রিম বাংলাদেশ সম্পর্কে জানাবো। তাহলে চলুন কথা না পা ফাটা দূর করার ক্রিম বাংলাদেশ কোনটি ভালো তা জেনে নিন।

বাজারে আপনি পা ফাটার বিভিন্ন ধরনের ক্রিম বা মলম কিনতে পারবেন। তবে পা ফাটা দূর করার উপায় সম্পর্কে জানতে আপনি একজন চর্ম বিশেষজ্ঞ ভালো ডাক্তারকে দেখাতে পারেন। তবে বাজারে চর্ম রোগের কিছু উল্লেখযোগ্য ক্রিম পাওয়া যায়। যেমনঃ হিল গার্ড, রেমি পা ফাটা, ইমুরিয়া ২৫, ক্রেক হিল, বোরো প্লাস, হিমালয় ফুট কেয়ার ইত্যাদ ক্রিম।

আপনি চাইলে এই ক্রিমগুলো আপনার পা ফাটা দূর করার জন্য ব্যবহার করতে পারেন। এসব ক্রিম আপনি বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তে যে কোন দোকানে ক্রয় করতে পারবেন। আশা করি পা ফাটা দূর করার ক্রিম বাংলাদেশ সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

পা ফাটা দূর করার ক্রিমের দাম

পা ফাটা দূর করার ক্রিমের দামঃ আমাদের মধ্যে অনেকে আছেন যারা পা ফাটা দূর করার জন্য পা ফাটার ক্রিম ব্যবহার করতে চান। তাদের জন্য আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি। আজকে আর্টিকেলে থাকছে আপনাদের জন্য পা ফাটা দূর করার ক্রিমের দাম। এর দাম জানলে আপনি বাংলাদেশের যেকোন দোকান থেকে খুব সহজেই সঠিক দামে পা হাটার ক্রিম কিনতে পারবেন। নিচে পা ফাটা দূর করা ক্রিমের দাম দেয়া হলো।

  • হিমালয় ওয়েলনেস ফুট কেয়ার ক্রিম বাংলাদেশ দাম= ১১০ টাকা
  • অ্যাভন ফুটওয়ার্কস ক্র্যাকড হিল রিলিফ ক্রিম বাংলাদেশ দাম= ১৭৯ টাকা
  • পতঞ্জলি ক্র্যাক হিল ক্রিম বাংলাদেশ দাম= ৬০ টাকা
  • হিলমেট ক্র্যাকড হিল রিপেয়ার স্পেশালিস্ট ক্রিম বাংলাদেশ দাম= ১১০ টাকা
  • খাদি জেসমিন এন্ড গ্রিনটি হারবাল ফুট ক্রিম বাংলাদেশ দাম= ১৪০ টাকা

পায়ের গোড়ালি ফাটার ক্রিম - গরমে পা ফাটা দূর করার উপায় - শীতে পা ফাটা দূর করার উপায়

পায়ের গোড়ালি ফাটার ক্রিমঃ যারা পায়ের গোড়ালি ফাটা নিয়ে অনেক বিরক্ত করা অবস্থায় রয়েছেন। তাদের জন্য আমাদের আজকের এই পোস্ট পা ফাটা দূর করার সহজ উপায়। বাংলাদেশে অনেক রকমের ক্রিম আছে পা ফাটার দূর করার উপায় ব্যবহার করার জন্য। এছাড়াও বিভিন্ন ঘরোয়া উপায়ে যে সকল ক্রিম ব্যবহার করে থাকি। এই পর্বটিতে আপনাদের জন্য থাকছে পায়ের গোড়ালি ফাটার ক্রিম সম্পর্কে। তাহলে চলুন, পায়ের গোড়ালি ফাটার ক্রিম সম্পর্কে জেনে নিন।

লেবুঃ লেবুতে রয়েছে ভিটামিন সি ও এসিড। যা আপনার পা ফাটা দূর করতে সাহায্য করবে। পা ফাটা দূর করার সহজ উপায়। আপনি চাইলে ঘরোয়া পদ্ধতিগুলো ব্যবহার করে আপনার পা ফাটা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

প্রথমে হালকা কিছু কুসুম গরম পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে পানিতে ১৫ থেকে ২০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখবেন। এরপর আপনার পা ফাটার স্থানে বিরাজ দিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করতে হবে। এভাবে আপনি এক সপ্তাহ নিয়ম মেনে পা পরিষ্কার করলে আপনি খুব সহজে পা ফাটা দূর করে পা ফাটা জনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

কলাঃ পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় এর মধ্যে আরেকটি উপায় হল কলা। পা ফাটা দূর করার ক্রিম হিসাবে কলা বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। আপনার যদি পা ফাটা ও পায়ের ব্যথা কমাতে পাকা কলা পেস্ট করে নিয়ে। এরপর ছ্যাক দেওয়া আগে হালকা গরম পানিতে ১৫ থেকে ২০ মিনিট হাঁটা যায়গা ভালোভাবে লাগিয়ে দিন। এরপর কলার ক্রিমটি শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করেন। পরবর্তীতে ঠান্ডা পানিতে ১০ থেকে ১৫ মিনিট ডুবে রাখুন। এরপর পা পরিষ্কার করে দেখবেন আপনার পা অনেকটা ফাটা দূর হয়ে গেছে ও ব্যথা কমে গেছে।

ভেজিটেবল অয়েলঃ সাধারণত আমাদের শরীরের পুষ্টি মেটাতে ভেজিটেবল রান্না করে খেয়ে থাকি। আপনারা অনেকেই হয়তো চিনি থাকবেন ভেজিটেবল অয়েল। এই ভেজিটেবল অয়েল শুধু রান্নার কাজে নয় এখন থেকে পা ফাটা দূর করার ক্রিম হিসেবে আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় হিসেবে এই অলটি ব্যবহার করবেন। 

ভেজিটেবল অয়েল পা ফাটা দূর করার সহজ উপায়ে ব্যবহার করার নিয়ম হলো। ভেজিটেবল অয়েল রাত্রিবেলায় ব্যবহার করলে সবচাইতে ভালো ফলাফল পাবেন। ভেজিটেবল অয়েল প্রথমে আপনি আপনার চর্মজনিত ক্ষতস্থান বা পা ফাটার ক্ষতস্থানটি ভালোভাবে ধুয়ে মুছে পরিষ্কার করে নিবেন। রাতে শুকনো কাপড় দিয়ে ভেজিটেবল অয়েল ভিজিয়ে পায়ে  মালিশ করে পায়ে মুজা করে শুয়ে থাকবেন। সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখবেন আপনার পা ফাটা অনেকখানি দূর হয়ে গেছে। এভাবে এক সপ্তাহ ব্যবহার করলে আপনার পা ফাটা থেকে মুক্তি পাবেন।

মধুঃ পা ফাটা দূর করতে মধু ক্রিমটি বেশ কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে। আপনার পা ফাটা দূর করার ক্ষেত্রে এক বালতিতে পা পরিমান হালকা কিছু কুসুম গরম পানি কাপ মধু মিশিয়ে ১৫ মিনিট পা ভিজিয়ে রাখুন। ভালো ফলাফল পেতে এভাবে এক মাস ব্যবহার করুন। সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন নিয়মিত ঘরোয়া এই ক্রিমটি ব্যবহার করে আপনার পা ফাটা থেকে আপনি মুক্তি পেতে পারেন।

গোলাপজল ও গ্লিসারিনঃ যারা পা ফাটা ও ব্যথা নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত ভুগছেন। তারা চাইলে গোলাপজল ও গ্লিসারিন ব্যবহার করে আপনার পায়ের ফাটা ও ব্যথা দূর করতে পারবেন। কারণ গোলাপ জলে রয়েছে ভিটামিন ই, ভিটামিন বি, সি ও ডি এবং এন্টি অক্সিডেন্ট ও কমল করে তুলতে সাহায্য করবে। তাই প্রতিদিনই ঘুমানোর আগে এক চামচ গোলাপ জল ভালোভাবে মুছে আপনার পায়ে লাগিয়ে ঘুমাবেন। সকালে ঘুম থেকে উঠে আপনার পায়ের দিকে লক্ষ্য করে দেখবেন আপনার পা ফাটা ও ব্যথা অনেকটা দূর হয়ে গেছে।

সর্বশেষ কথাঃ পা ফাটা দূর করার সহজ উপায়

প্রিয় পাঠক বন্ধু, যারা আমাদের আজকের এই পোস্ট পা ফাটা দুর সহজ উপায় সম্পর্কে পড়েছেন। এবং পা ফাটার কারণ, পা ফেটে গেলে করণীয়, পা ফাটা দূর করার উপায়, পা ফাটা দূর করার ওষুধ, হাত পা ফাটা দূর করার উপায়, পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়, পা ফাটা দূর করার ক্রিম বাংলাদেশ, পা ফাটা দূর করার ক্রিমের দাম, পায়ের গোড়ালি ফাটার ক্রিম, পা ফাটা দূর করার, পা ফাটা দূর করার ক্রিম, শীতে পা ফাটা দূর করার উপায়, গরমে পা ফাটা দূর করার উপায় যে সকল প্রশ্ন  করেছেন আজকের এই পোস্টে তাদের সকল প্রশ্নের উত্তর পড়ে উপরের দিকে আলোচনা করেছি।

আশাকরি, আজকের এই পোস্টটি পড়ে আপনি অনেক উপকৃত হয়েছেন। আমাদের আজকের এই পোস্ট পা ফাটা দূর করার সহজ উপায় যদি আপনার ভালো লেগে থাকে। তাহলে অবশ্যই আপনাদের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। যারা পা ফাটা জনিত সমস্যায় ভুগছেন।

এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থেকে শেষ পর্যন্ত পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন।

Next Post Previous Post