লংগান ফল খাওয়ার ১২টি উপকারিতা জেনে নিন

লংগান একটি বিদেশি ফল। থাইল্যান্ড, চীন, মালয়েশিয়া, তাইওয়ান সহ বিভিন্ন দেশে এই ফলের চাষ করা হয়। বর্তমানে বাংলাদেশেও এই ফলের চাষ শুরু হয়েছে। লংগান ফলকে আশফল বা কাঠলিচু বলা হয়। এর পাতা এলার্জি, ডায়াবেটিস, ক্যান্সার এবং কার্ডিও ভাস্কুলার রোগ নিরাময়ে ব্যবহার করা হয়। বন্ধুরা, লংগান  খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত নিচে আলোচনা করা হলো।

বন্ধুরা, নিশ্চয়ই আপনারা লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। আজকের পোস্টে লংগান খাওয়ার উপকারিতা ও লংগানের পুষ্টিগুণ উপাদান আলোচনা করবো। বিস্তারিত জানতে শেষ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে থাকুন।

লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা "উপস্থাপনা"

লংগান ফল মূলত এশিয়া মহাদেশের উষ্ণ অঞ্চলের গ্রীষ্মমন্ডলীয় একটি ফল। এটি সোপবেরি  পরিবারের একটি সদস্য। এই ফলে বিভিন্ন খনিজ উপাদান এবং প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি পাওয়া যায়। লংগান ফলের অনেক ঔষধিগুনও রয়েছে। লংগান চীন দেশে বিভিন্ন ব্যথা, জ্বর ও সাপের বিষের প্রতিষেধক হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। নানা রকম পুষ্টিগুণ ও ঔষধিগুনে ভরপুর এই ফলটির উপকারিতা আমাদের অনেকেরই অজানা। তাই দেরি না করে আসুন জেনে নেই লংগান ফলের উপকারিতা সম্পর্কে।

লংগান ফল খাওয়ার ১২টি উপকারিতা

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা

লংগানে পটাশিয়াম পাওয়া যায়। পটাশিয়াম কোষ এবং শরীরের তরলগুলোর মধ্যে একটি অপরিহার্য ইলেক্ট্রোলাইট। হৃদস্পন্দন এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা

লংগান ফল ভিটামিন সি এর একটি ভালো উৎস। ভিটামিন-সি হলো শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ফ্রি-রেডিক্যালের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে শরীরকে সুরক্ষিত রাখে এবং অসুস্থতা থেকে রক্ষা করে। এছাড়া লংগান ফল কোষের ক্ষতি প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে এবং দীর্ঘস্থায়ী রোগ হওয়ার ঝুঁকি কমায়।ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

হজম শক্তি বৃদ্ধি করে | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা 

তাজা এবং শুকনা লংগান ফলের মধ্যে ফাইবার থাকে। এটি অন্ত্রের ব্যাকটেরিয়া উন্নত করতে সাহায্য করে। এর ফলে আপনার পরিপাকতন্ত্র সুস্থ থাকে। লংগানে থাকা ফাইবার অন্যান্য হজম সংক্রান্ত সমস্যা যেমনঃ কোষ্ঠকাঠিন্য,ডায়রিয়া,পেট ফোলা ও পেট খারাপ ইত্যাদি সমস্যাগুলো প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

সর্দি কাশির চিকিৎসায় | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা

লংগান অ্যান্টিভাইরাস বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন হওয়ার ফলে এটি সর্দি-কাশির-চিকিৎসায় সাহায্য করে। এটি শুধুমাত্র সর্দি এবং ঠান্ডা প্রতিরোধ করে না, বরং উপসর্গগুলো করতে পারে।

রক্তস্বল্পতা দূর করে | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ঐতিহ্যগত চীনা ওষুধে লংগানের নির্যাস রক্তল্পতা নিরাময়ে ব্যবহৃত হয়। লংগান ফলে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে। এটি লাল রক্ত কোষের উৎপাদনকে সাহায্য করতে পারে এবং রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। তাই যারা রক্তস্বল্পতায় ভুগছেন তারা লংগান ফল খেতে পারেন।

ক্যান্সার কোষকে বাধা দেয় | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা

লংগান বীজের নির্যাস চীনা ওষুধের ব্যবহার করা হয়েছে। যা ডি.এন.এ সংশ্লেষনে হস্তক্ষেপ করে এবং টিউমারের অবাঞ্চিত অনকোপ্রোটিন গুলোকে ধ্বংস করে। তাই লংগান ফল বা বীজের নির্যাস গুড়ো খাওয়া পদ্ধতিগতভাবে লিভার ফুসফুস এবং জরায়ুর ক্যান্সার কোষকে বাধা দিতে সাহায্য করে।

মানসিক ব্যাধি দূর করতে | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা 

দুশ্চিন্তা একটি মানসিক ব্যাধি। এই দুশ্চিন্তা বা ভয় একজনের দৈনন্দিন কাজকর্মে বাধা দিতে যথেষ্ট শক্তিশালী। এক গবেষণায় দেখা গেছে লংগান ফল দুশ্চিন্তা দূর করতে সাহায্য করে। লংগান ফলের নির্যাস দিয়ে তৈরি চা দুশ্চিন্তা মানসিক ব্যাধি দূর করতে সাহায্য করে।

যৌন চাহিদা বাড়াতে | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা

পুরুষ এবং মহিলা উভয়ের মধ্যে যৌন চাহিদা বাড়াতে ভূমিকা রাখে লংগান ফল। বেশ কিছু গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে লংগান ফল বিবেচনা করা হয় একটি কামেদীপক হিসেবে যা কামশক্তি বাড়াতে সাহায্য করতে পারে।

ক্ষত নিরাময় প্রদাহ কমায় | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা

লংগান ফল এর বাইরের স্তর, ভেতরে নরম স্তর ও লংগান ফলের বীজে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং প্রদাহ বিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যা ক্ষত নিরাময়ে সাহায্য করে এবং প্রদাহ কমায়। 2012 সালে এভিডেন্স ভিত্তিক পরিপূরক -এ প্রকাশিত একটি গবেষণায় পাওয়া গেছে যে,লংগান ফলের বাইরের খোসা,ভেতরের নরম অংশ এবং বীজে গ্যালিক এসিড থাকে। যা প্রদাহজনক রাসায়নিকের উৎপাদনকে বাধা দেয়।

স্মৃতিশক্তি উন্নতি করতে | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা 

একটি প্রাণী গবেষণায় দেখা গেছে যে লংগান ফল স্মৃতি শক্তি উন্নতি করতে পারে এবং মেমোরি অপরিপক্ক নিউরোনাল বেঁচে থাকার হার বৃদ্ধি করে। তাই স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করতে লংগান ফল খেতে পারেন।

ত্বকের যত্নে | লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা

লংগান ফলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে। যা কোলাজেনের উৎপাদন বৃদ্ধি করে। ফলে ত্বককে মজবুত ও মসৃণ রাখতে সাহায্য করে। ত্বকের দাগ ও বলিরেখা দূর করে বার্ধক্য কমাতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।

প্রোটিনের চাহিদা পূরন লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা

লংগান ফলে রয়েছে ক্যালরি ও প্রোটিন যা আমাদের শরীরের প্রোটিনের চাহিদা পূরণ করে। ফলে শরীরে শক্তি জোগাতে সাহায্য করে। এবং কাজ করার মনোভাব সৃষ্টি করে।

১০০ গ্রাম লংগানে পুষ্টিগণ উপাদান রয়েছে

উপাদান            পরিমাণ

ক্যালোরি             60 Kcal

প্রোটিন               1.31 gm

ফ্যাট                   0.1 gm

ফাইবার              1.1 gm

ভিটামিন সি        84 mg

ফসফরাস           6.0 mg

ক্যালসিয়াম        2.0 mg

সর্বশেষ কথা

প্রিয় বন্ধুরা, আজকের পোস্টে লংগান ফল খাওয়ার উপকারিতা ও পুষ্টিগুণ সম্পর্কে আলোচনা করতে চেষ্টা করেছি। লংগান ফলের অনেক উপকারিতা রয়েছে তাই আমাদের সবার চেষ্টা করা উচিত লংগান ফল খাওয়ার। এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ার জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটিট ফলো করুন।
Next Post Previous Post