স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা - স্ট্রবেরি খাওয়ার নিয়ম - স্ট্রবেরি কোথায় পাওয়া যায়

প্রিয় বন্ধুরা, আপনারা কি স্ট্রবেরি উপকারিতা সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে আপনাদের জন্য আজকের পোস্ট। আজকের আর্টিকেলে আপনাদের স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা, স্ট্রবেরি খাওয়ার নিয়ম, স্ট্রবেরি উৎপাদনের সময়, স্ট্রবেরি কোথায় পাওয়া যায় ও স্ট্রবেরির পুষ্টিগুণ সম্পর্কে জানাবো। স্ট্রবেরি একটি মিষ্টি জাতীয় ফল। স্ট্রবেরি ফলটি খেতে অনেক সুস্বাদু ।স্ট্রবেরি ফল আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী। এছাড়া এই ফলটি আমাদের হাড় ও দাঁতের জন্য বেশ কার্যকরী। আসুন দেরি না করে জেনে নেয়া যাক, স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে।

স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা - স্ট্রবেরি খাওয়ার নিয়ম - স্ট্রবেরি কোথায় পাওয়া যায়

বন্ধুরা, আজকের পোস্টে ভোরের আলো আইটির পক্ষ থেকে আপনাদের জন্য স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা, স্ট্রবেরি খাওয়ার নিয়ম, স্ট্রবেরি উৎপাদনের সময়, স্ট্রবেরি কোথায় পাওয়া যায় ও স্ট্রবেরির পুষ্টিগুণ সম্পর্কে আলোচনা করবো।

স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা "উপস্থাপনা"

মৌসুমী এই ফল স্ট্রবেরি বাজারে কম সময়ে থাকে। যে সকল দেশে ঠান্ডার বেশি সেই সকল দেশেই স্ট্রবেরি চাষাবাদ হয়ে থাকে। স্ট্রবেরি শীতকালীন একটি ফল। বর্তমানে বাংলাদেশে বিভিন্ন অঞ্চলে স্ট্রবেরি চাষাবাদ হয়ে থাকে। দৈনন্দিন জীবনে আমাদের পুষ্টি চাহিদা মেটানোর জন্য আমরা অনেক ধরনের ফল খেয়ে থাকি। 

এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কাঁঠাল, আনারস, আপেল, মালটা, কমলা আরো অনেক ফল। আমরা স্বাস্থ্য সচেতন হওয়ার জন্য নিয়মিত স্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে থাকি। আমরা যারা স্ট্রবেরি ফল খেতে পছন্দ করি। তাদের জন্য স্ট্রবেরি ফল খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে জানা উচিত। আজকের পোস্টে স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করব বিস্তারিত জানতে শেষ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে থাকুন এবং পড়ুন।

স্ট্রবেরি খাওয়ার ১০টি উপকারিতা 

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরিতে আছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকার কারণে আমাদের শরীরের ডায়াবেটিস ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সহায়তা করে। তাই নিয়মিত সকালের নাস্তার তালিকায় এই ফলটি রাখা উচিত।

ওজন কমাতে সাহায্য করে | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরিতে ফ্যাট বার্নিং হরমোন আছে। যা ওজন কমাতে সাহায্য করে। খাওয়ার পরে পেট ভরা থাকে। ফলে ওজন কমাতে সাহায্য করে।

ত্বক ও চুল সুন্দর রাখে | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরিতে থাকা ক্যালসিয়াম ত্বক ও চুল সুন্দর রাখতে সাহায্য করে। স্ট্রবেরিতে থাকা ফলিক এসিড চুলের গোড়া মজবুত করে। এবং স্ট্রবেরিতে থাকা ক্যালসিয়াম ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

হার্ট সচল রাখতে কার্যকরী  | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরি ফসফরাস, ম্যাঙ্গানিজ উপাদান রয়েছে। যা রক্ত চলাচল সহজ করে এবং হার্টকে সচল রাখতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরিতে আছে ভিটামিন সি। যা আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে । প্রতিদিন ৫-১০ টি স্ট্রবেরি খেলে শরীরে ভিটামিন সি এর চাহিদা পূরণ করে।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে  | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরি ফলে রয়েছে পটাশিয়াম। যা শরীরে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। এর ফলে উচ্চরক্তচাপের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। যারা উচ্চ রক্তচাপে সমস্যায় ভুগছেন তারা এই ফলটি খেতে পারেন।

স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়  | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরিতে থাকা পুষ্টি উপাদান অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি থেকে রক্ষা পেতে সাহায্য করে।

হাড়ের জন্য উপকারী | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরিতে থাকা ফসফরাস, ম্যাঙ্গানিজ, ফলিক অ্যাসিড, হাড় মজবুত শক্ত করতে সাহায্য করে। হাড় গঠনের জন্য বেশ উপকারী।

 ক্যান্সার প্রতিরোধ করে | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরিতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্যানসারের কোষের বিরুদ্ধে লড়াই করে এবং প্রতিরোধ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। প্রতিদিন স্ট্রবেরি খেলে ক্যানসারের কোষকে গঠন করতে বাধা প্রদান করে। তাই স্ট্রবেরি ফলটি আমাদের খাওয়া উচিত।

স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে | স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা

স্ট্রবেরিতে পুষ্টি সমৃদ্ধ একটি ফল। স্ট্রবেরিতে থাকা প্রচুর পরিমাণে ক্যালরি আমাদের শরীরে পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে। তাই এই ফলটি খেলে  স্বাস্থ্য ভালো থাকে ও স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে।

স্ট্রবেরি খাওয়ার অপকারিতা

স্ট্রবেরি ফল খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। স্ট্রবেরি ফল যেমন আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো ঠিক তেমনি এই ফলের কিছু ক্ষতিকর দিক রয়েছে। আপনারা অনেকেই স্ট্রবেরি ফলের অপকারিতা জানতে চান তাদের জন্য আজকের পোস্ট। এতক্ষণ আমরা স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে জেনেছি এখন আমরা জানবো স্ট্রবেরি খাওয়ার কিছু অপকারিতা সম্পর্কে। 

অতিরিক্ত স্ট্রবেরি ফল খাওয়া থেকে আমাদের বিরত থাকা উচিত। কারণ স্টবেরিতে ফাইবারের মাত্রা বেশি থাকায় অতিরিক্ত খেলে আমাদের ডায়রিয়া ও গ্যাসের সমস্যা হতে পারে।

যারা ওজন কমাতে চান তারা এই স্ট্রবেরি ফল খাওয়া থেকে বিরত থাকবেন। কারণ স্ট্রবেরি ফলে ফ্যাট বার্নিং হরমোন আছে যা আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করে।

স্ট্রবেরি খাওয়ার নিয়ম

স্ট্রবেরি ফলের খোসা একত্রিত থাকায় এ ফলের আঁশ ও খোসা সহ খাওয়া যায়। পুষ্টিতে ভরপুর এই স্ট্রবেরি আমরা সকালে নাস্তা হিসেবে খেতে পারি।

আমরা সকালে নাস্তা অনেক ধরনের খাবার খেয়ে থাকি। এক্ষেত্রে খাবার তালিকা স্ট্রবেরি রাখা উচিত। সকালে নাস্তা হিসেবে চমৎকার এই স্ট্রবেরি আমাদের তীব্র ক্ষুধা মেটাতে সাহায্য করে। স্ট্রবেরি কমলা ও আপেলের চেয়ে বেশি ভিটামিন সি পুষ্টিগুণ রয়েছে।

স্ট্রবেরি কোথায় পাওয়া যায়

বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের কিছু জেলায় স্ট্রবেরি পাওয়া যায়। বিশেষ ভাবে যেসব জেলায় শীত বেশি পড়ে ও বেশিদিন থাকে সেসব এলাকায় স্ট্রবেরি চাষ করা সম্ভব। বাংলাদেশের যে সকল অঞ্চলে পাওয়া যায়। যেমনঃ দিনাজপুর, রংপুর, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, পাবনা, নাটোরেও চাষ করা হয়। স্ট্রবেরি চাষের জন্য উপযুক্ত মাটিঃ বেলে দোঁআশ ও মাটিতে প্রচুর জৈব সার প্রয়োগ করে স্ট্রবেরি ফলানো যায়।

স্ট্রবেরি উৎপাদনের সময়

ডিসেম্বর থেকে মার্চ পর্যন্ত স্ট্রবেরি পাওয়া যায় । স্ট্রবেরি একটি শীতকালীন ফল। বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের শীত বেশি থাকার কারণে বাংলাদেশে উত্তরাঞ্চলে স্ট্রবেরি উৎপাদন সম্ভব। এছাড়া মাঝে মাঝে এপ্রিলেও স্ট্রবেরি পাওয়া যায়।

স্ট্রবেরি পুষ্টিগুণ

স্ট্রবেরিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, সি, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ম্যাঙ্গানিজ, ফোলেট, ফাইবার, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ একটি ফল।

সর্বশেষ কথা

পাঠক, আজকের পোস্টে আমরা শেষ পর্যন্ত চলে এসেছি। আজকের পোস্টে স্ট্রবেরি খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে জানানোর চেষ্টা করেছি। স্ট্রবেরিতে অনেক পুষ্টিগুণ রয়েছে। তাই আমাদের স্ট্রবেরি ফলের মৌসুমে স্ট্রবেরি ফল খাওয়া উচিত। এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থেকে পোস্টটি জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম অনেক পোস্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করে পাশে থাকুন।

Next Post Previous Post