ডুরিয়ান ফল খাওয়ার ১১টি উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নিন

ডুরিয়ান দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অনেক দেশে ফলের রাজা হিসেবে ব্যাপক স্বীকৃত। এটি মালয়েশিয়ার জাতীয় ফল। ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরে রয়েছে এর ব্যাপক জনপ্রিয়তা। দেখতে অবিকল একটি ক্ষুদ্রকর কাঁঠালের মতো তবে ফলের কাটা দীর্ঘ ও খুবই শক্ত হয়ে থাকে। এর ভেতরে অল্প কয়েকটি বড় কুয়া থাকে। কাঁঠালের বীজ সিদ্ধ করে খাওয়া যায় এবং এর বীজ দিয়ে বংশবিস্তার করা যায়। 

বন্ধুরা, নিশ্চয়ই আপনারা ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। আজকের পোস্টে ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা ও ডুরিয়ান ফলের পুষ্টিগুণ উপাদান আলোচনা করবো। বিস্তারিত জানতে শেষ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে থাকুন।

ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা 'উপস্থাপনা'

ডুরিয়ান ফল পাকলে অনেক মিষ্টি ও সুস্বাদু হয়ে থাকে এবং তীব্র গন্ধবিশিষ্ট হয়ে থাকে। ডুরিয়ান একটি মৌসুমী ফল। এর ঋতু সাধারণতো জুন থেকে আগস্ট পর্যন্ত স্থায়ী হয়। সুমিষ্টি এই ফলটির নানারকম স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে। আসুন জেনে নিন ডুরিয়ান ফলের উপকারিতা সম্পর্কে।

ডুরিয়ান ফল খাওয়ার ১১টি উপকারিতা

ওজন বাড়াতে | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

১ কেজি আকারের ডুরিয়ানে প্রায় ৩৫০ ক্যালরি থাকে। একজন গড় প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য দৈরা ২০০০ ক্যালরির প্রায় ৬৮ শতাংশ পূরণ করে। এছাড়া এক কোয়া ডুরিয়ানে প্রায় ১৫৪ ক্যালরি রয়েছে। তাই যারা ওজন বাড়াতে চান তাদের জন্য এই ফল অনেক উপকারী।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ডুরিয়ান উচ্চমাত্রায় পটাশিয়াম সমৃদ্ধ একটি ফল। পটাশিয়াম কোষ এবং শরীরের তরলগুলোর মধ্যে একটি অপরিহার্য ইলেক্ট্রোলাইট যা হৃদয় স্পন্দন ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

ক্যান্সার সৃষ্টিকারী রাসায়নিক | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ডুরিয়ান ডায়েটারি ফাইবার সমৃদ্ধ এটিকে একটি ভালো বাল্ক রেচক করে তোলে। ফলে এটি অন্ত্র থেকে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী রাসায়নিক গুলোকে আবদ্ধ করতে সাহায্য করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ডুরিয়ানে গুরুত্বপূর্ণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ভিটামিন সি-এর ভালো উৎস। ভিটামিন-সি শরীর নিজে থেকে তৈরি করতে পারে না। ফলে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খেতে হয়। ১০০ গ্রাম ডুরিয়ানে দৈনিক চাহিদা ৩৩ % ভিটামিন সি পাওয়া যায়। যা মানব দেহকে সংক্রমণ এজেন্টের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সাহায্য করে। এবং ক্ষতিকারক ফ্রি রেডিক্যাল গুলকে মেরে ফেলতে সাহায্য করে। ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

মানসিক চাপ কমাতে সহায়তা | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ডুরিয়ানে রয়েছে উচ্চমাত্রার প্রয়োজনীয় অ্যামিনো এসিড ট্রিপটোফান। ট্রিপটোফানকে প্রকৃতির ঘুমের বড়িও বলাব হয়। মানুষের মধ্যে ট্রিপটোফান সেরোটোনিন এবং মেলাটোনিনে বিপাকিত হয়। এর ফলে ঘুমের সূচনায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং স্নায়বিক বিরক্তিকরতা দূর করতে এবং অনেক মানসিক চাপ কমাতে সহায়তা করে।

স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ডুরিয়ান ফল ভিটামিন বি কমপ্লেক্স গুলোর চমৎকার উৎস। কারণ এই ফলে নিয়াসিন, রিবোফ্লাভিন, প্যান্টোথেনিক এসিড (বিড), পাইরিডক্সিন (বি-৬) এবং থায়ামিন (বি-১) রয়েছে। যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী।

রক্তকণিকা গঠনের জন্য | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ডুরিয়ান ফলে রয়েছে প্রয়োজনীয় কপার এবং আয়রন। কপার লোহিত রক্তকণিকা উৎপাদনের প্রয়োজন এবং আয়রন লোহিত রক্তকণিকা গঠনের জন্য অপরিহার্য ভূমিকা পালন করে।

হাড়ের শক্তি বৃদ্ধিতে | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ডুরিয়ান ফলে রয়েছে ক্যালসিয়াম,পটাশিয়াম, লৌহ যা হাড় ও দাঁতকে মজবুত করতে সাহায্য করে। এছাড়া এতে থাকা ফসফরাস হাড়ের বৃদ্ধি ও রক্ষণাবেক্ষণে অনেক সাহায্য করে।

মিনারেলের ঘাটতি পূরণ করতে | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ডুরিয়ান ফলে ভালো পরিমাণে কপার, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, ফসফরাস ও আয়রন এবং জিঙ্ক পাওয়া যায়। এই সকল খনিজ উপাদানগুলো মিনারেলের ঘাটতি পূরণ করে এবং শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

গর্ভবস্থায় শিশুর মস্তিষ্কের গঠন | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

প্রতিদিনের প্রয়োজনের ফোলেট এর প্রায় 20 ভাগ থাকে ডুরিয়ান ফলে। গর্ভবস্থায় শিশুর মস্তিষ্কের গঠন, মেরুদন্ড, ও ডি.এন.এ গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

হজমে সহায়তা করে | ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা

ডুরিয়ান ফলে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে। যা আমাদের খাদ্য হজমে সহায়তা করে। যাদের হজমের সমস্যা আছে তারা এই ফলটি খেতে পারেন।

১০০ গ্রাম ডুরিয়ান ফলে পুষ্টিগুণ উপাদান রয়েছে

উপাদান                পরিমাণ

এনার্জি                   147 Kcal

কার্বোহাইড্রেট        27.09gm

প্রোটিন                   1.47 gm

টোটাল ফ্যাট          5.33 gm

ডায়েটারি ফাইবার  3.8 gm

ফোলেট                  36mcg

ভিটামিন এ             44 Iu

ভিটামিন সি            19.7 mg

সোডিয়াম               2mg

পটাশিয়াম              436mg

ক্যালসিয়াম            6mg

ম্যাগনেসিয়াম        30mg

ম্যাঙ্গানিজ              0.325mg

ফসফরাস               39mg

আয়রন                   0.43mg

সর্বশেষ কথা

প্রিয় বন্ধুরা, আজকের পোস্টে ডুরিয়ান ফল খাওয়ার উপকারিতা ও পুষ্টিগুণ সম্পর্কে আলোচনা করতে চেষ্টা করেছি। ডুরিয়ান ফলের অনেক উপকারিতা রয়েছে তাই আমাদের সবার চেষ্টা করা উচিত ডুরিয়ান ফল খাওয়ার। এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ার জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন।
Next Post Previous Post