কলা খাওয়ার ১৫টি উপকারিতা সম্পর্কে জানুন

প্রিয় বন্ধুরা, আজকের পোস্টে কলা খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করবো। কলা একটি স্বাস্থ্য উপযোগী ফল। ফলটি দেখতে যেমন সুন্দর খেতে তেমন বেশি সুস্বাদু। কলা খেতে সবাই পছন্দ করেন। অনেক পুষ্টিতে ভরা এই ফলটিতে রয়েছে ভিটামিন এ, বি, বি6, সি, ডি, ই, কে ইত্যাদি। কাঁচা কলা বা পাঁকা কলা দুটোই আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারী। কলাতে রয়েছে পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, ফলিক এসিড, আয়রন উপাদান। তাহলে দেরি না করে জেনে নেয়া যাক, কলা খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে ।

কলা খাওয়ার ১৫টি উপকারিতা সম্পর্কে জানুন

বন্ধুরা, আপনি কি কলা খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে আজকের পোস্ট আপনার জন্য। আজকের পোস্টে ভোরের আলো আইটির পক্ষ থেকে কলা খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করবো বিস্তারিত জানতে আমাদের সঙ্গে থাকুন।

কলা খাওয়ার উপকারিতা 'উপস্থাপনা'

পাঁকা কলা সকালে নাস্তা খেতে অনেক মজা লাগে। তাহলে অনেক মুখরোচক একটি ফল। নিয়মিত পাঁকা কলা খাওয়া আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক ভালো। পাঁকা কলাতে রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ।কলা পটাসিয়ামের ভালো উৎস। যা সোডিয়ামের নেতিবাচক প্রভাবগুলোর বিরুদ্ধে কাজ করে।পাঁকা কলাতে প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান গুলো আমাদের শরীরের পুষ্টির মেটাতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। কলা খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে জানতে আমাদের পোস্টটি শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

কলা খাওয়ার ১৫টি উপকারিতা

শরীরের পুষ্টির চাহিদা মেটাতে |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

পাঁকা কলাতে পটাশিয়াম ও সোডিয়াম উপাদান বিদ্যমান আছে। তাই পাঁকা কলা নিয়মিত খেলে আমাদের শরীরের পুষ্টির চাহিদা মেটাতে সাহায্য করে।

ত্বকের যত্নে  |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

যারা ত্বকে শুষ্কতা সমস্যায় ভুগছেন। পাঁকা কলাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে। যা ত্বকের শুষ্ক ভাব দূর করে ত্বক সুন্দর ও উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।

শরীরে শক্তি যোগায়  |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

পাঁকা কলাতে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার। ফাইবার আমাদের শরীরে বিভিন্ন রোগের বিরুদ্ধে অ্যান্টিবডি তৈরি করে। ফলে আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় এবং শরীরে শক্তি যোগাতে সাহায্য করে।

হজমে সহায়তা করে |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

যাদের হজমে সমস্যা হয় তারা কাঁচা কলার তরকারি, ভর্তা, সিদ্ধ করে খাবেন। তাহলে হজম শক্তি বৃদ্ধি পাবে।

শরীরে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট তৈরি করে  |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

নিয়মিত পাঁকা কলা খেলে দেহের ক্লান্তি দূর করে, আমাদের দেহে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট তৈরি করে। ফলে শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায় |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

পাঁকা কলাতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট দেহের ক্যান্সারের কোষকে বৃদ্ধি হতে বাধা প্রদান করে। ফলে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

প্রতিদিন সকালে একটি পাঁকা কলা খেলে  কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে। শরীর দুর্বলতা দূর করে কাজ করা মনোভাব সৃষ্টি করবে।

শর্করা গঠনে |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

পাঁকা কলাতে রয়েছে  ভিটামিন  এ, বি, বি6, সি, ডি, ই । যা আমাদের দেহে শর্করা চাহিদা মেটাতে সাহায্য করে। এছাড়া পাঁকা কলা রক্তে শর্করা গঠনে সাহায্য করে।

পাকস্থলী আলসার রোধে |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

যাদের পাকস্থলীর আলসারের সমস্যা ভুগছেন তারা নিয়মিত পাঁকা কলা খেতে পারেন। পাঁকা কলা পাকস্থলীর অ্যাসিডিটি নিয়ন্ত্রণ করে এবং পাকস্থলী আলসার রোধে কাজ করে।

হরমোনের ভারসাম্য বজায় |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

পাঁকা কলা দেহের হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। এবং যেসব রোগীর দেহের রক্তস্বল্পতা বা এনিমিয়া রোগ রয়েছে তাদের জন্য কলা বেশ উপকারী।

রক্তে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ বজায় রাখে |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

পাঁকা কলাতে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে যা আমাদের রক্তে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ বজায় রাখে। ফলে রক্ত চলাচল সঠিকভাবে করে থাকে।

স্মৃতিশক্তি বাড়ে |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

পাঁকা কলাতে অনেক পুষ্টিগুন রয়েছে। প্রতিদিন সকালে একটি করে পাঁকা কলা খেলে স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

কলার মধ্যে রয়েছে উচ্চ পরিমাণে ক্যালসিয়াম ও সামান্য পরিমাণে লবণ হৃদপিণ্ড ভালো রাখে ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে।

মানসিক প্রশান্তি  |  কলা খাওয়ার উপকারিতা

পাঁকা কলার মধ্যে এমাইনো এসিড থাকে যা মানসিক প্রশান্তি দূর করে। পাঁকা কলার মধ্যে থাকা ম্যাগনেসিয়াম ও ক্যালসিয়াম বিষন্নতা দূর করতে সাহায্য করে।

কিডনি ও ক্যান্সার দুর |  কলা খাওয়ার উপকারিতা
 
যারা কিডনি ও ক্যান্সার নিয়ে চিন্তিত তারা পাঁকা কলা খেতে পারেন। পাঁকা কলাতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ফেরলিক থাকে যা কিডনি ও ক্যান্সার দুর করতে সাহায্য করে।

সর্বশেষ কথা

প্রিয় পাঠক, আপনারা যারা এই পোস্টটি পড়ছেন তারা নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন কলা খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে। যদি কলা নিয়মিত খেতে পারি তাহলে বিভিন্ন রোগ থেকে রক্ষা পেতে পারি। এছাড়া কলাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন রয়েছে যেগুলো আমাদের শরীরের পুষ্টি যোগাতে সাহায্য করে। এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থেকে পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Next Post Previous Post