ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ - ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩

ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ - আপনি কি ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২৩ কত তা খুঁজছেন এবং ওয়ালটন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২৩ জানতে আগ্রহী। যারা ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ লিখে গুগলে সার্চ করে আমাদের ওয়েবসাইটে এসেছেন। তাহলে আপনার জন্য আমাদের আজকের এই পোস্টটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ নিয়ে আমরা আজকের আর্টিকেলটি সম্পন্ন সাজিয়েছি।
ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ - ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩

আপনি কি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২৩ কিস্তিতে সঠিক ধারণা খোঁজ করছেন? আপনাদের জন্য আজকে আর্টিকেলে ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ সর্বশেষ আপডেট  সম্পর্কে জানাতে তুলে ধরা হয়েছে। ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ বিস্তারিত সকল তথ্য জানতে শেষ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে থাকুন।

ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ ভূমিকাঃ

প্রিয় পাঠক বন্ধুরা, আজকে আমরা আলোচনা করব আমাদের দৈনন্দিন জীবনে একটি প্রয়োজনীয় ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস নিয়ে। সেই ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসটি হলো ফ্রিজ। ফ্রিজ এমন একটি পণ্য যা আমাদের খাবারের চাহিদা পূরন করতে ও খাবার টাটকা রাখতে সাহায্য করে থাকে। এক কথায় বলতে গেলে খাবার সংরক্ষণের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়ে থাকে ফ্রিজ। আমাদের পারিবারিক বা সংসারে খাবার সংরক্ষণ করার জন্য ফ্রিজ প্রয়োজন হয়। 

ফ্রিজ কেনার জন্য বেশি টাকার প্রয়োজন হয়। তাই সব সময় ফ্রিজ কেনার মত সামর্থ্য হয়ে থাকে না। আর তাই সাধ্যের মধ্যে ভালো মানের ফ্রিজ কেনার জন্য কিছু ফ্রিজের দাম জানা থাকলে ফ্রিজ কিনতে অনেক সুবিধা হয়। তাই আমাদের ফ্রিজের দাম সম্পর্কে জানা থাকা উচিত। তাহলে চলুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক, ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩।

ওয়ালটন ফ্রিজ কেনার টিপস

আমাদের আজকের আর্টিকেলে ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ এই পর্বে ওয়ালটন ফ্রিজ কেনার টিপস সম্পর্কে জানবেন। সকলে চাই কম দামে ভালো একটি ফ্রিজ কিনতে। কম দামের মধ্যে হলেও ভালো মানের  কিছু ফ্রিজ রয়েছে যেগুলো সম্পর্কে আমাদের জানা থাকলে আমরা এই কম দামে ফ্রিজ গুলো নিয়েও স্বাচ্ছন্দে থাকতে পারি।

আপনি যদি ওয়ালটন রেফ্রিজারেটর পেতে চান তবে আপনার কেনার আগে নিশ্চিত করুন যে এটি 100% কপার কনডেন্সার এবং ন্যানোটেকনোলজি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। যাতে আপনি খাবারের মান বজায় রাখতে পারেন। অতিরিক্তভাবে, রেফ্রিজারেটরের কনডেন্সারগুলিতে ব্যবহৃত অ্যালুমিনিয়াম টিউবগুলি যাচাই করুন৷

অতিরিক্তভাবে, তামার নালীটি প্রথম প্রকারের নাকি প্রথম নয় এবং অ্যালুমিনিয়াম বক্স রেফ্রিজারেটরের চেয়ে বেশি যুক্তিযুক্ত কিনা তা নির্ধারণ করুন। একটি ওয়ালটন নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর কিনুন। কারণ আপনার রেফ্রিজারেটরের ফ্রিজার কম্পার্টমেন্ট বরফ দিয়ে পূর্ণ হবে না।

যেসব জিনিস দেখে ওয়ালটন ফ্রিজ কিনবেন

আমাদের আজকের আর্টিকেলে ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ এই পর্বে যেসব জিনিস দেখে ওয়ালটন ফ্রিজ কিনবেন তা সম্পর্কে বিস্তারিত জানবেন।অনেকে আছেন যারা বড় ফ্রিজ নিতে চান। যাদের পরিবারের সদস্য সংখ্যা বেশি তাদের বড় ফ্রিজটাই প্রয়োজন হয়। আপনার প্রয়োজনের উপর নির্ভর করে ওয়ালটন ফ্রিজের ভেতরে আরো জায়গার  জন্য সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজ কিনতে পারবেন। 

ওয়ালটন ফ্রিজের গ্রস ভলিউম হল ফ্রিজ স্পেস এর বাহিরের ব্যাস এবং নেট ভলিউম হলো ফ্রিজ স্পেস এর ভিতরের ব্যাস। আজকাল রেফ্রিজারেটর বা ফ্রিজের স্থান পরিমাণ লিটারে। আপনি উপরের রেফ্রিজারেটের ছবি এবং স্পেসিফিকেশন সহজেই পরীক্ষা করতে পারেন।

ওয়ালটন রেফ্রিজারেটরের কম্প্রেসার ওয়ারেন্টি সময়কাল পরীক্ষা করতে ভুলবেন না। কারণ কম্প্রেসার যেকোনো ফ্রিজার বা রেফ্রিজারেটরের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। যা সাধারণত ওয়ালটন ফ্রিজে থাকে। ওয়ালটন কোম্পানির উৎপাদিত ফ্রিজারের গুণগত মান সবারই জানা। বাংলাদেশে তারা প্রতি বছর এক লাখেরও বেশি ফ্রিজ বিক্রি করে।

যারা তাদের বিদ্যুতের খরচ কমাতে চান তারা ইনভার্টার প্রযুক্তি সহ একটি ওয়ালটন ফ্রিজ কেনার কথা বিবেচনা করতে পারেন। এর সিগন্যাল-টাইপ প্রযুক্তির ফলে আপনার বিদ্যুতের খরচ কমে যাবে। যাইহোক, টাকা আঁটসাঁট হলে, আপনি একটি ইনভার্টার ছাড়া একটি ফ্রিজ পেতে পারেন।

কত লিটারে এক সেফটি - এক সেফটি সমান কত লিটার - ফ্রিজ কত লিটারে কত সেফটি

ফ্রিজ কেনার আগে আপনার কি জানা আছে ফ্রিজের সেফটির হিসাব। অনেকে জানেনা এক সেফটি সমান কত লিটার বা কত লিটারে এক সেফটি। ফ্রিজ কেনার সময় অনেক লোক বিভ্রান্তিতে পড়ে যায়। তাই ফ্রিজ কেনার আগে আমাদের ফ্রিজের সেফটির হিসাব জেনে নেওয়া উচিত।

অনেকে আছেন যারা ফ্রিজের সেফটি হিসাব সম্পর্কে জানেন না। তারা গুগলে ফ্রিজের সেফটি লিখে সার্চ করে থাকেন। তাদের সুবিধার্থে আমি আমাদের আজকের ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ আর্টিকেলে সেফটির হিসাব জানাবো।

  • পায়ে নিরাপদ দূরত্ব কী?
  • নিরাপত্তা বর্ণনা করুন।
  • এক নিরাপত্তা কত লিটার রাখে?
  • কত স্থান নিরাপদ বলে মনে করা হয়?
  • কত লিটার পান করা নিরাপদ?
  • ফ্রিজে কত লিটার নিরাপত্তা আছে?
  • এক নিরাপত্তা কত লিটার রাখে?
  • এক নিরাপত্তায় কত লিটার থাকে?
  •  176 লিটার দ্বারা কত নিরাপত্তা প্রদান করা হয়?
  • 28.32 গ্যালন এক নিরাপত্তার সমতুল্য।

যেমনঃ আপনি যদি জানতে চান ৫ সেফটি ফ্রিজ কত লিটার এ ক্ষেত্রে ৫* 28.32 = 141.58 লিটার।

১৭৬ লিটার কত = 6.21সেফটি

ওয়ালটন ফ্রিজ কিস্তিতে কেনার নিয়ম ২০২৩

উপরের পোস্টে আমরা ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২৩ সম্পর্কে জেনেছি। যারা মধ্যবিত্ত পরিবার রয়েছে তাদের নগদ টাকা দিয়ে ফ্রিজ কেনা সম্ভব হয় না। তাদের জন্য সুখবর। ২০২৩ সালে ওয়ালটন কোম্পানি আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছে ওয়ালটন ফ্রিজ কিস্তিতে ক্রয় করার সুযোগ। 

আপনি চাইলে ওয়ালটন শোরুমে থেকে খুব সহজেই কিস্তির মাধ্যমে ওয়ালটন ফ্রিজ ক্রয় করতে পারবেন। আমাদের আজকের আর্টিকেলে ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২৩ এই পর্ব আপনার জন্য থাকছে ওয়ালটন ফ্রিজ কিস্তিতে কেনার নিয়ম ২০২৩ সম্পর্কে।

চলুন কিস্তিতে ওয়ালটন ফ্রিজ কেনার জন্য 2023 সালের নিয়ম নিয়ে আলোচনা করা যাক। কে কিস্তি পরিশোধের পদ্ধতি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করেছে? তাদের জন্য, এই প্রতিক্রিয়া কিস্তি একটি নির্দিষ্ট সময়ে আইটেম বা উপকরণের বিনিময়ে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ জমা করা বোঝায়। অন্য কথায়, একটি পূর্বনির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে সম্পূর্ণ অর্থ প্রদান করা। আপনি যদি 50,000 টাকায় একটি রেফ্রিজারেটর কিনতে চান, তাহলে আপনাকে প্রথমে 10,000 টাকা আমানত হিসাবে এবং বাকি 40,000 টাকা পাঁচ মাসের মধ্যে দিতে হবে৷

 176 লিটার দ্বারা কত নিরাপত্তা প্রদান করা হয়?

28.32 গ্যালন এক নিরাপত্তার সমতুল্য।

ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ - ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩

ওয়ালটন বাংলাদেশের সবচাইতে বড় কোম্পানির মধ্যে একটি। বাংলাদেশ মৌসুমী জলবায়ু হওয়ার ফলে বাংলাদেশের গরম কাল দীর্ঘস্থায়ী থাকে। তাই খাদ্যপূর্ণ সংরক্ষণ করার জন্য ফ্রিজের প্রয়োজনীয়তা অনেক বেড়ে যায়। আজকাল প্রতিটি পরিবারে মানুষের নিত্যদিনের প্রয়োজনের পণ্যের মধ্যে একটি হলো ফ্রিজ। কাঁচা খাদ্য সামগ্রী মাছ ও মাংস রান্না করা বিভিন্ন খাবার ফলমূল ও শাকসবজি ইত্যাদি ফ্রিজে সংরক্ষণ করে রাখতে হয়।

দেশে উৎপাদিত পণ্যের একমাত্র রেঞ্জ হল ওয়ালটন। বাংলাদেশে ওয়ালটনের বিভিন্ন আইটেম বিতরণ করা হয়েছে। ফলস্বরূপ, ওয়ালটন কোম্পানি প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে উচ্চ মানের পণ্য সরবরাহ করে। আমাদের সাইটের পাঠকরা আজকে বাংলাদেশে ওয়ালটন ফ্রিজের দাম 2023 এবং ওয়ালটন ফ্রিজের দাম 2023 সম্পর্কে জানতে আগ্রহী। তাদের জন্য, কম দাম, বেশি দাম, ছোট ফ্রিজ এবং বড় ফ্রিজের ওয়ালটন ফ্রিজের দাম 2023 এবং ওয়ালটন ফ্রিজের দাম 2023 নীচে দেওয়া হয়.

২০ হাজার টাকার কম দামে ওয়ালটন ফ্রিজ

অনেকেই আছেন যারা নিম্নবিত্ত ফ্যামিলির মানুষ। তারা চাইলেও হয়তো অনেক সময় বেশি দামে ফ্রিজ কিনতে পারেনা। কেননা পরিবার চালাতে হলে অনেক টাকা খরচ হয়ে যায়। এজন্য ফ্রিজ কেনা সহজে হয়ে ওঠে না। যাদের টাকা কম এবং কম বাজেটের মধ্যে ভালো মানের ফ্রিজ খুঁজছেন। তাদের জন্য কিছু কম দামের ভালো মানের ফ্রিজ নিয়ে এসেছে ওয়ালটন ফ্রিজ কোম্পানি। আপনার জন্য আমাদের আজকের আর্টিকেল ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ এই পর্বে ২০ হাজার টাকার কম দামে ওয়ালটন ফ্রিজ।

মডেল                 দাম                 

WFO-JET-RXXX ১৪,৯৯০/- টাকা

WFS-TN3-RBXX ১৭,৪৯০/- টাকা

WFO-1X1-RXXX ১৭,৯৯০/- টাকা

WFO-1A5-RXXX ১৮,৮৯০/- টাকা

২৫ থেকে ৪০ হাজার টাকা দামের ওয়ালটন ফ্রিজ

যারা মিডিল পরিবারের মানুষ রয়েছেন। তারা অনেকেই ভালো ফ্রিজ খোঁজে থাকেন। মিডিল পরিবার হওয়া সত্বেও অনেকে চায় একটু কম বাজেটের মধ্যে ভালো ফ্রিজ কিনতে। তাদের জন্য আমাদের আজকের আর্টিকেল ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ এই পর্বে থাকছে ২০ থেকে ৪০ হাজার টাকা দামের ওয়ালটন ফ্রিজ।

মডেল                 দাম                 

WFD-1D4-RDXX ২৪,৯৯০/- টাকা

WFD-1B6-RXXX ২৫,৪৯০/- টাকা

WFA-1N3-GDSH ২৬,২৯০/- টাকা

WFA-1N3-GDXX ২৬,২৯০/- টাকা

WFA-1N3-ELRD ২৬,৪৯০/- টাকা

WFD-1B6-RDXX ২৬,৪৯০/- টাকা

WFA-1N3-ELEX ২৬,৯৯০/- টাকা

WFD-1B6-GDEL ২৬,৯৯০/- টাকা

WFD-1F3-RDXX ২৬,৯৯০/- টাকা

WFA-1N3-GDES ২৭,৪৯০/- টাকা

WFD-1D4-RXXX ২৭,৪৯০/- টাকা

WFD-1B6-GDEH ২৭,৬৯০/- টাকা

WFD-1B6-GDSH ২৭,৬৯০/- টাকা

WFA-2B5-ELRD ২৮,৯৯০/- টাকা

WFD-1D4-GDEL ২৮,৯৯০/- টাকা

WFD-1D4-GDSH ২৯,২৯০/- টাকা

WFD-1D4-GDEH ২৯,৬৯০/- টাকা

WFB-2X1-RNXX ২৯,৯৯০/- টাকা

WFD-1F3-RXXX ৩০,৯৯০/- টাকা

WFA-2A3-ELXX ৩১,৯৯০/- টাকা

WFA-2A3-NEXX ৩১,৯৯০/- টাকা

WFA-2A3-RLXX ৩১,৯৯০/- টাকা

WFA-2D4-NEXX ৩২,৯৯০/- টাকা

WFD-1F3-GDEL ৩২,৯৯০/- টাকা

WFD-1G0-GDEL ৩২,৯৯০/- টাকা

WFD-1F3-GDEH ৩৩,৫৯০/- টাকা

WFD-1F3-GDSH ৩৩,৯৯০/- টাকা

WFD-1G0-GDSH ৩৩,৯৯০/- টাকা

WFA-2A3-GDXX ৩৪,৪৯০/- টাকা

WFB-1G7-GDXX ৩৪,৪৯০/- টাকা

WFD-1G0-GDEH ৩৪,৪৯০/- টাকা

WFA-2D4-RXXX ৩৪,৭৯০/- টাকা

WFA-2D4-RLXX ৩৪,৯৯০/- টাকা

WFB-1G7-GDSH ৩৪,৯৯০/- টাকা

WFB-1H5-ELXX ৩৪,৯৯০/- টাকা

WFA-2B0-GDXX ৩৫,৪৯০/- টাকা

WFA-2A3-GDEL ৩৫,৭৯০/- টাকা

WFA-2A3-GDSH ৩৫,৯৯০/- টাকা

WFA-2B0-GDEL ৩৫,৯৯০/- টাকা

WFB-1H5-GDXX ৩৫,৯৯০/- টাকা

WFA-2A3-GDEH ৩৬,২৯০/- টাকা

WFA-2A3-GDEL ৩৬,৪৯০/- টাকা

WFA-2B0-GDEH ৩৬,৪৯০/- টাকা

WFB-1H5-GDEL ৩৬,৪৯০/- টাকা

WFB-2A8-ELXX ৩৬,৫৯০/- টাকা

WFB-2X1-ELXX ৩৬,৭৯০/- টাকা

WFB-2B3-GDXX ৩৭,৪৯০/- টাকা

WFB-2X1-GDXX ৩৭,৫৯০/- টাকা

WFB-2B3-GDEL ৩৭,৭৯০/- টাকা

WFB-2X1-GDEL ৩৭,৯৯০/- টাকা

WFB-2B3-GDEH ৩৮,৩৯০/- টাকা

WFB-2B3-GDSH ৩৮,৩৯০/- টাকা

WFB-2B6-ELXX ৩৮,৪৯০/- টাকা

WFB-2X1-GDSH ৩৮,৫৯০/- টাকা

WFB-2A8-GDXX ৩৮,৯৯০/- টাকা

বড় ওয়ালটন ফ্রিজের দাম

যারা বেশি দামের বড় ফ্রিজ ক্রয় করতে চান। তাদের জন্য আমাদের আজকের আর্টিকেল ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩  এই পর্বে বড় ওয়ালটন ফ্রিজ দাম সম্পর্কে বিস্তারিত জানাবো।

মডেল                 দাম                 

WFC-3F5-GDEH ৫৩,২৯০/- টাকা

WFC-3F5-GDEH ৫২,১৯০/- টাকা

WFC-3F5-GDNE ৫১,৬৯০/- টাকা

WFC-3F5-GDEL ৫১,৬৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDEH ৫১,৬৯০/- টাকা

WFC-3F5-GDXX ৫১,১৯০/- টাকা

WFC-3F5-GDEH ৫১,১৯০/- টাকা

WFE-3E8-GDEN ৫০,৯৯০/- টাকা

WFC-3F5-GDNE ৫০,৬৯০/- টাকা

WFC-3F5-GDEL ৫০,৬৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDSH ৫০,৬৯০/- টাকা

WFE-3E8-GDEL ৫০,৪৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDEL ৫০,১৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDEH ৫০,১৯০/- টাকা

WFE-3E8-GDXX ৪৯,৯৯০/- টাকা

WFC-3F5-GDXX ৪৯,৯৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDNE ৪৯,৯৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDXX ৪৯,৬৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDEL ৪৯,১৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDEH ৪৯,১৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDNE ৪৮,৯৯০/- টাকা

WFK-3D7-GDEL ৪৮,৬৯০/- টাকা

WFC-3D8-GDXX ৪৮,৬৯০/- টাকা

WFE-3C3-GDEN ৪৮,৪৯০/- টাকা

WFE-3B0-GDEN ৪৮,৪৯০/- টাকা

WFE-3B0-GDEN ৪৮,৪৯০/- টাকা

WFE-3A2-GDEL ৪৮,৪৯০/- টাকা

WFC-3X7-GDEH ৪৮,৪৯০/- টাকা

WFC-3D8-NEXX ৪৮,১৯০/- টাকা

WFE-3X9-GDEL ৪৭,৯৯০/- টাকা

WFE-3C3-GDXX ৪৭,৯৯০/- টাকা

WFE-3B0-GDEN ৪৭,৯৯০/- টাকা

WFE-3B0-GDEL ৪৭,৯৯০/- টাকা

WFE-3A2-GDEN ৪৭,৯৯০/- টাকা

WFC-3X7-GDEH ৪৭,৯৯০/- টাকা

WFC-3F5-NEXX ৪৭,৮৯০/- টাকা

WFE-3X9-GDXX ৪৭,৪৯০/- টাকা

WFE-3B0-GDXX ৪৭,৪৯০/- টাকা

WFE-3B0-GDEV ৪৭,৪৯০/- টাকা

WFE-3B0-GDEL ৪৭,৪৯০/- টাকা

WFC-3D8-NEXX ৪৭,১৯০/- টাকা

WFE-3B0-GDXX ৪৬,৯৯০/- টাকা

WFE-3A2-GDEN ৪৬,৯৯০/- টাকা

WFC-3F5-NEXX ৪৬,৬৯০/- টাকা

WFE-3X9-GDEL ৪৬,৪৯০/- টাকা

WFE-3E8-ELEX ৪৬,৪৯০/- টাকা

WFE-3A2-GDEL ৪৬,৪৯০/- টাকা

WFE-3X9-GDXX ৪৫,৯৯০/- টাকা

WFE-3E8-ELNX ৪৫,৯৯০/- টাকা

WFE-3A2-GDXX ৪৫,৯৯০/- টাকা

সর্বশেষ কথাঃ ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ - ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩

ওয়ালটন কোম্পানি মানুষের কথা চিন্তা করে কিস্তিতে বিক্রি করে থাকে। আপনি চাইলে সর্বোচ্চ ৩০ মাস মেয়াদে কিস্তিতে পণ্য ক্রয় করতে পারবেন। এজন্য আপনাকে সর্বনিম্ন ৮ হাজার টাকা দামের পণ্য কিস্তিতে নিতে হবে। ওয়ালটন কোম্পানি কম দামে ভালো মানের পণ্য দিয়ে থাকে।

আপনি চাইলে ওয়ালটনের যে কোন শোরুম থেকে ফ্রিজের পাশাপাশি মনিটর, এসি, ওয়াশিং মেশিন, হোন্ডা, রুম হিটার, রাইস কুকার, ফ্যান, ল্যাপটপ ইত্যাদি পণ্য ক্রয় করতে পারবেন।

বন্ধুরা, যারা আমাদের আজকের আর্টিকেল ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়েছেন। তারা নিশ্চয়ই ওয়ালটন ফ্রিজ প্রাইজ ইন বাংলাদেশ ২০২৩ ও ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৩ সম্পর্কে বিস্তারিত সকল তথ্য সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থেকে শেষ পর্যন্ত পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন।

Next Post Previous Post