OrdinaryITPostAd

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো - ki vabe youtube channel kolbo

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো - আসসালামু আলাইকুম। বর্তমানে ইউটিউব চ্যানেল একটি অনলাইন এর অন্যতম প্লাটফর্ম। আন্তর্জাতিক বিশ্বে অনেক বেকারদের ইনকাম করার একটি উপায় হল ইউটিউব চ্যানেল। আপনি কি কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো এটি গুগলে লিখে সার্চ করে আমাদের ওয়েবসাইটে এসেছেন। তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। আপনি যদি গুগল কোম্পানি ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে অনেকে ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট করার কথা ভাবছেন? আজকে পোস্টে আমি আপনাকে কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো এই প্রশ্নের উত্তর সম্পর্কে বিস্তারিত সকল তথ্য আপনার সামনে সাজিয়েছি।

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো - ki vabe youtube channel kolbo

বর্তমানে সকল ওয়েবসাইটে আসা অনলাইন ট্রাফিকের একটা বিশাল অংশ আসে ভিডিও কনটেন্ট থেকে প্রতিদিন কোটি কোটি মানুষ মিনিট, ঘন্টা ও সময় ইউটিউব ভিডিও দেখে থাকেন। এই সকল তথ্য মনিটাইজ এর মাধ্যমে যেসব চ্যানেলের মালিকরা লাখ লাখ ডলার আয় করেন। তাহলে বন্ধুরা জেনে নেয়া যাক, কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো এই প্রশ্নের উত্তর জানতে শেষ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে থাকুন।

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো উপস্থাপনা

আপনি যদি অনলাইনে আয়ের জন্য ইউটিউব চ্যানেল চালাতে চান তাহলে আপনার জন্য আজকের এই পোস্ট। এর জন্য আপনাকে প্রথমত একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবে। ইউটিউব চ্যানেল খোলার জন্য আপনাকে ইউটিউব চ্যানেলের খোলার নিয়ম সম্পর্কে জানতে হবে। একজন ব্যক্তির চাকরি করে যে পরিমাণ টাকা আয় করেন তার চেয়েও বেশি টাকা আয় করতে পারবেন একটি ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করে। 

আজকের আর্টিকেলে আমি আপনাদের জানাবো ইউটিউব কি, ইউটিউব চ্যানেল কেন তৈরি করবেন, ইউটিউব চ্যানেল খোলার জন্য কি কি প্রয়োজন, ইউটিউব চ্যানেল কত ধরনের, ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম গুলি কি কি, কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো, ইউটিউব চ্যানেল কিভাবে খুলতে হয়। কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন মোবাইলে, ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করার নিয়ম, ইউটিউব চ্যানেল খুলতে কত টাকা লাগে, নতুন ইউটিউব চ্যানেল, ইউটিউব চ্যানেল ডাউনলোড এ সকল প্রশ্নের উত্তর আজকে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব।

ইউটিউব কি

ইউটিউব চ্যানেল হল একটি ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম। আমরা বিভিন্ন ধরনের ভিডিও দেখতে এবং অন্যদের সাথে তা শেয়ার করতে পছন্দ করি। ইউটিউব চ্যানেল সাধারণত একজন ব্যক্তি পরিচালনা করে থাকে। আমরা চাইলে এই ভিডিও চ্যালেন আমরা তৈরি করতে পারি এবং ভিডিও আপলোড করতে পারি। একদম ফ্রিতে কোন টাকা প্রয়োজন হয় না।

ইউটিউব চ্যানেল বিশ্বের সবচাইতে বড় সার্ভার গুগল এর সোশ্যাল সাইট এর ভিডিও সার্চ ইঞ্জিন হিসেবে প্রচারিত করে থাকে। বর্তমান যুগে পড়াশোনা, চাষাবাদ, ইঞ্জিনিয়ারিং, টেকনোলজি ইত্যাদি সকল তথ্য সম্পর্কে আমরা খুব সহজে ইউটিউব চ্যানেল থেকে সার্চ করে খুব সহজে তথ্য সম্পর্কে জানতে পারি। আমাদের মত কেউ একজন ভিডিও তৈরি করে ভিডিও আপলোড করে এবং সেই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার মাধ্যমে গুগল এডসেন্স থেকে অনলাইনে মাধ্যমে ডলার ইনকাম করে থাকেন।

ইউটিউব চ্যানেল কেন তৈরি করবেন

আজকাল আমরা কোন বিষয়ের প্রয়োজন হলে আমরা সাধারণত ইউটিউবে চ্যানেলে সেটি লিখে সার্চ করে থাকি। অনেকে আছে যারা ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও দেখতে পছন্দ করেন। আবার অনেকে আছে যারা ভিডিও আপলোড করে অনলাইনে মাধ্যমে ডলার আয় করছে। বর্তমানে ইউটিউব চ্যানেলের জনপ্রিয়তার কারণে ইউটিউব চ্যানেলের আপলোড করার লোক সংখ্যা অনেক দিন দিন বৃদ্ধি পেয়েছে।

ইউটিউব চ্যানেল শুধুমাত্র ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট নয়। বরং ইউটিউব চ্যানেল বর্তমান দেশে জনপ্রিয় ভিডিও সার্চ ইঞ্জিন হিসেবে প্রচলিত রয়েছে। এই ইউটিউব চ্যানেলে সার্চ ইঞ্জিনে আপনি প্রশ্ন করে আপনার প্রশ্নের কাঙ্ক্ষিত উত্তরটি পেতে পারেন।

ইউটিউব চ্যানেল খোলার জন্য কি কি প্রয়োজন

অনেকেই প্রশ্ন করে থাকেন ইউটিউব চ্যানেল খোলার জন্য কি কি প্রয়োজন। তাদের সুবিধার্থে জানানো হচ্ছে যে ইউটিউব চ্যানেল খুলতে সাধারণত একটি জিমেইল প্রয়োজন হয়।

  • ইন্টারনেট সংযোগ
  • গুগল ও জিমেইল একাউন্ট
  • মোবাইল নাম্বার

আপনি যদি একটি জিমেইল তৈরি করা থাকে তাহলে খুব সহজেই ইউটিউব চ্যানেল খুলতে পারবেন। আর যদি আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করা না থাকে। সেক্ষেত্রে আপনার একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে ইউটিউব চ্যানেল খোলার সুবিধার্থে।

একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলতে খুব বেশি কিছু প্রয়োজন হয় না। কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো তা দেখে নিন। আপনার ডিভাইসে ইন্টারনেট সংযোগ থাকলে যথেষ্ট সাথে লাগবে একটি জিমেইল একাউন্ট খোলার পরে ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করার জন্য আপনার নাম্বার একটি কোড দেবে কোডটি ভেরিফাই করা হলে একাউন্ট তৈরি হয়ে যাবে।

ইউটিউব চ্যানেল কত ধরনের 

অনেকে আছে যারা ইউটিউব চ্যানেল কত প্রকার লিখে সার্চ করে থাকেন। তাদের সুবিধার্থে জানানো যাচ্ছে। ইউটিউব চ্যানেল সাধারণত দুই প্রকার। ইউটিউব চ্যানেলের একটি হল পার্সোনাল চ্যানেল। অন্যটি হলো বিজনেস ইউটিউব চ্যানেল।

পার্সোনাল ইউটিউব চ্যানেল একাউন্ট ও বিজনেস ইউটিউব চ্যানেল একাউন্ট খোলার নিয়ম একই ধরনের তবে বিন্যাস একাউন্টে বেশ কিছু সুবিধা রয়েছে। বিজনেস ইউটিউব চ্যানেলের সুবিধা এজন্যই যে এখানে একের অধিক জিমেইল ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো - ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম গুলো কি কি

আপনাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম গুলি কি কি, কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো এ সকল প্রশ্ন লিখে গুগলে সার্চ করে থাকে। আজকে তাদের সুবিধার্থে আমি এখন কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো এই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

আপনি যদি ইউটিউব চ্যানেলে তৈরি করে ভিডিও আপলোড করতে চান। তার জন্য আপনার অবশ্যই একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে হবে। আরেকটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে হলে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি সকল তথ্য সম্পর্কে জানতে হবে। ইউটিউব চ্যানেল করার জন্য প্রথমে একটি প্রোফাইল তৈরি করা প্রয়োজন, যেটি অনেকটা আপনার ফেসবুক প্রোফাইল এর মতই।

 

ইউটিউব চ্যানেলের ক্ষেত্রে প্রোফাইল গুলোকে ইউটিউব চ্যানেল বলে। ইউটিউব চ্যানেলে আপনার আপলোড করা ভিডিওগুলি এই চ্যানেলের অন্তর্ভুক্ত হবে। নিয়মিত ইনকাম করতে হলে আপনাকে চ্যানেলের প্রচারণা ও ভিডিও আপলোড চালিয়ে যেতে হবে। আপনার ইউটিউব চ্যানেল ভাইরাল করার জন্য। কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো এই পোস্টটি সম্পন্ন করলে আপনি জানতে পারবেন ইউটিউব চ্যানেল খোলার সকল তথ্য সম্পর্কে। তাহলে কথা না বাড়িয়ে এখন জেনে নেই, কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো কম্পিউটার বা ডেস্কটপ এর মাধ্যমে বিস্তারিত নিচে ধাপে ধাপে দেওয়া হলো।

  • ইউটিউব চ্যানেল খোলার জন্য আপনাকে প্রথমে আপনার ডিভাইসের মাধ্যমে ইউটিউব চ্যানেল লিখে গুগল সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ দিতে হবে। এরপর আপনার কাঙ্খিত জিমেইলটি দিয়ে সাইন ইন করতে হবে। আপনার নির্ধারিত জিমেইল আইডি ও পাসওয়ার্ড দিলে জিমেইল অ্যাকাউন্ট লগইন হয়ে যাবে।






    • তারপর আপনাকে জিমেইল এর উপর ক্লিক করতে হবে এরপর নিচের মতো একটি পেজ আসবে যেখানে youtube studio লেখায় ক্লিক করতে হবে। আপনার যদি আগে কোন ইউটিউব চ্যানেল খোলা হয়ে থাকে তাহলে সে অ্যাকাউন্ট এখানে লগইন হবে।

    • এখন আমরা বিজনেস ইউটিউব চ্যানেল কিভাবে খুলবো তা সম্পর্কে জানব বিজনেস অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে এখানে আপনাকে সেটিং এ যেতে হবে।

    • এরপরে আপনাকে ইউটিউব চ্যানেল Create করতে হবে। এর জন্য আপনাকে Create a new channel ক্লিক করতে হবে।
    • Create a new channel ক্লিক করার পর আপনার চ্যানেলের নাম লিখে Create ক্লিক করে দেবেন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়ে যাবে।

    ইউটিউব চ্যানেল কিভাবে খুলতে হয় - কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন মোবাইলে - নতুন ইউটিউব চ্যানেল

    অনেকে প্রশ্ন করে থাকেন কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো, ইউটিউব চ্যানেল কিভাবে খুলতে হয়, কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন মোবাইলে এ সকল প্রশ্ন করে থাকেন তাদের সুবিধার্থে নিচে ধাপে ধাপে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

    • মোবাইলে ইউটিউব চ্যানেল খোলার জন্য আপনাকে প্রথমত গুগল বাজারে যেতে হবে। এরপর আপনাকে youtube.com ওয়েবসাইটে যেতে হবে। এরপর আসার পর আপনাকে জিমেইল অ্যাকাউন্ট লগইন করতে হবে।
    • ইমেইল আইডি লগইন করার পরে। আপনার ফোনের অপশনটি ফোন থেকে ডেস্কটপ মুডে করতে হবে। ডেক্সটপ মোডে নেয়ার যা জন্য এখানে থ্রি ডট আইকন । এখানে ক্লিক করলে ডেস্কটপ মোডে অপশন আসবে। ওখানে ক্লিক করলে স্মার্টফোনটি ডেস্কটপ মোড চলে আসবে।

    • জিমেইল আইডি খোলার জন্য এখান থেকে জিমেইল আইকনে ক্লিক করে সেটিং অপশনে যেতে হবে।
    • সেটিং অপশনে ক্লিক করার পর। এখান থেকে ছবির মত দেখতে একটি পেজ আসবে। এখানে Create a new Channel এ ক্লিক করব। যেমনটি নিচের ছবিতে দেখতে পাচ্ছেন।

    • এরপর নিচে দিকে একটি পেজ আসবে পেজটিতে ইউটিউব চ্যানেলের নাম লিখে ট্রেড বাটনে ক্লিক করলে। আপনার সামনে আপনার ইউটিউব চ্যানেলটি তৈরি হয়ে যাবে।

    ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করার নিয়ম 

    • প্রথমে ইউটিউব চ্যানেল এ যাওয়ার পর লাল চিহ্ন এই অপশনে ক্লিক করতে হবে।
    • এই ডিসপ্লের প্রদর্শন হবে এখান থেকে youtube stadio বাটনে ক্লিক করতে হবে।

    • youtube stadio বাটনে ক্লিক করার পর এখানে একটি ডিসপ্লে আসবে ডিসপ্লেতে Setting লেখা অপশনটি আসবে।

    • এখানে সেটিং এ ক্লিক করার পর এখানে আরেকটি ডিসপ্লে আসবে। এখানে চ্যানেলে ক্লিক করতে হবে।

    • এখন Feature eligibility তে ক্লিক করতে হবে। এবং Verify Phone Number এ ক্লিক করতে হবে।

    • Verify Phone Number এ ক্লিক করলে নিচের মত একটি ডিসপ্লে আসবে। সেখানে আপনার ফোন নাম্বার এবং Get Code বাটনে ক্লিক করলে, আপনার মোবাইলে একটি ভেরিফিকেশন কোড পেয়ে যাবেন। এরপরে সেই ভেরিফিকেশন কোড বসিয়ে সাবমিট করে দিলেই আপনার ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফিকেশন এর কাজ হয়ে যাবে।

    ইউটিউব চ্যানেল খুলতে কত টাকা লাগে - নতুন ইউটিউব চ্যানেল - ইউটিউব চ্যানেল ডাউনলোড

    অনেকে প্রশ্ন করে থাকেন ইউটিউব চ্যানেল খুলতে কত টাকা, নতুন ইউটিউব চ্যানেল, ইউটিউব চ্যানেল ডাউনলোড ইত্যাদি সম্পর্কে তাদের সুবিধার্থে বিস্তারিত সকল তথ্য তুলে ধরব।

    বর্তমানে বিশ্বে ইউটিউব চ্যানেল খুলতে কোন টাকা প্রয়োজন হয় না। বিশ্বের সবচেয়ে বড় সার্ভার নেটওয়ার্ক গুগল youtube চ্যানেল পরিচালনা করে থাকেন। youtube চ্যানেলে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে সম্পন্ন ফ্রি করে দিয়েছেন। তাই যে কেউ চাইলে খুব সহজে ফ্রিতে ইউটিউব চ্যানেল খুলতে পারে এর জন্য কোন টাকা প্রে করতে হয় না।

    আর যারা নতুন ইউটিউব চ্যানেল খুলতে চাই। তারা আমাদের উপরে লেখা পোস্টটি সম্পন্ন করে নিজে প্রফেশনাল পার্সোনাল ও বিজনেস ইউটিউব চ্যানেল খুলতে পারেন। নিচে ইউটিউব চ্যানেল ডাউনলোড লিংক দেওয়া হল।

    কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো - ki vabe youtube channel kolbo | সর্বশেষ কথা

    আজকের পোস্টটি পড়ে নিশ্চয়ই আপনার কাঙ্খিত সকল প্রশ্নের ইউটিউব কি, ইউটিউব চ্যানেল কেন তৈরি করবেন, ইউটিউব চ্যানেল খোলার জন্য কি কি প্রয়োজন, ইউটিউব চ্যানেল কত ধরনের,কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবো - ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম গুলি কি কি, ইউটিউব চ্যানেল কিভাবে খুলতে হয় - কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন মোবাইলে, ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করার নিয়ম, ইউটিউব চ্যানেল খুলতে কত টাকা লাগে - নতুন ইউটিউব চ্যানেল - ইউটিউব চ্যানেল ডাউনলোড উত্তর উপরের দিকে পোস্টে জানিয়েছি। আশা করি আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর জানাতে পেরেছি।

    এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থেকে শেষ পর্যন্ত পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন।

    এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

    পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন