OrdinaryITPostAd

লটকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে জানুন

প্রিয় বন্ধুরা, আজকের পোস্টে লটকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করবো।মৌসুমী একটি ফল লটকন। টক-মিষ্টি এই ফলটি দেখতে অনেক সুন্দর খেতে অনেক সুস্বাদু তাই অনেকেই লটকন ফল খেতে ভালোবাসেন। ইংরেজিতে লটকনকে বলা হয় বার্মিজ গ্রেপ।লটকন দেখতে হলুদাভ ছোট এবং গোলাকার হয়ে থাকে। এই ফলটি সরাসরি খাওয়া যায় জ্যাম বা জেলি ও আঁচার তৈরি করে খাওয়া যায়।

লটকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে জানুন

পাঠক, আপনারা লটকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। আজকের পোস্টে ভোরের আলো আইটির পক্ষ থেকে লটকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করবো।

লটকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা :ভূমিকা

লটকনে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি1,বি2 ও ভিটামিন  সি রয়েছে। এছাড়াও এতে ফসফরাস,  ক্যালসিয়াম, ক্রোমিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম ও পটাশিয়াম রয়েছে। অন্য যেকোনো ফলের থেকে লটকন ফলে আয়রনের পরিমাণ অনেক বেশি থাকে। তাহলে দেরি না করে জেনে নেয়া যাক, লটকন খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে।

লটকন খাওয়ার ১১টি উপকারিতা

খাদ্য শক্তির অভাব পূরণে | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

প্রতি 100 গ্রাম লটকনের কোয়াই খাদ্য শক্তির পরিমাণ 92 ক্যালোরি। তাই অন্য যে কোনো ফলের তুলনায় এই ফলটির খাদ্য শক্তির পরিমাণ অনেক বেশি।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

লটকন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে খুবই কার্যকরী ভূমিকা পালন করে কারণ এতে ভিটামিন সি পাওয়া যায়। ভিটামিন সি এর চাহিদা পূরণ করার জন্য লটকন খেতে পারলে রোগবালাই যেমন দূর হবে তেমনি নতুন রোগ বাসা বাঁধতে দিবে না। তাই সুস্থ থাকতে প্রতিদিন দুই থেকে তিনটি লটকন খেতে হবে।

রক্ত ও হাড় গঠনে লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

প্রতি 100 গ্রাম লটকনের আয়নের উপস্থিতি প্রায় 5.34 মিলিগ্রাম যা রক্ত ও হাড় গঠনে সাহায্য করে।

কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

লটকনের  রয়েছে ভিটামিন বি1 , ক্যালসিয়াম ও পটাশিয়াম যা মানবদেহের কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়। 

রুচি বাড়াতে  | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

রুচি বাড়াতে লটকন বেশি উপকারী। গর্ভবতী মায়েরা গর্ভাবস্থায় একেবারে খাবার খেতে পারে না, লটকন খেলে খাওয়ার রুচি বাড়ে। এছাড়াও লটকনের আঁচার তৈরি করে খাওয়া যায় যা মুখের রুচি বাড়াতে কাজ করে।

ঔষধি গুন বৃদ্ধি করতে | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

লটকনের পাতা ও শিকড় খেলে পেটের নানা রকমের অসুখ ভালো হয়ে যায়। এর বীজ গনোরিয়া রোগের প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে। এছাড়া ডায়রিয়া দূর করতে এর পাতার গুড়া ভালো কাজে দেয়। 

ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে  | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

লটকনের প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে যা ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে সাহায্য করে। এটি ত্বকের লাবণ্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। 

চর্মরোগ প্রতিরোধে | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

লটকন একটি ভিটামিন সমৃদ্ধ ফল। এতে ভিটামিন সি রয়েছে যা আমাদের চর্মরোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

গরমে পানি তৃষ্ণা মেটাতে | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

লটকন গরম পানির তৃষ্ণা মেটাতে খাওয়া যায়। কারণ লটকন ফলে পানির অংশ পরিমাণ রয়েছে বেশি।

ডায়রিয়া দূর করতে | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

লটকনের বীজ গনোরিয়া রোগের প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে। লটকনের পাতার গুড়া করে ফেলে ডায়রিয়া রোগ দূর করতে সাহায্য করে।

অসুখ ও জ্বর থেকে মুক্তি | লটকন খাওয়ার উপকারিতা 

লটকন ফলের পাশাপাশি লটকনের গাছের পাতায় রয়েছে ঔষুধি গুনাগুন। লটকন গাছের পাতা ও শিকড় খেলে নানারকম অসুখ ও জ্বরের থেকে মুক্তি পেতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।

লটকন খাওয়ার অপকারিতা 

  • অতিরিক্ত লটকন খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।
  • অতিরিক্ত লটকন খেলে ক্ষুধা মন্দা দেখা দেয়।
  • এই ফলটিতে ভিটামিন সি আছে তাই বেশি পরিমাণে লটকন খেলে এসিডিটি দেখা দিতে পারে তাই পরিমাণমতো খেতে হবে।

লটকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা : উপ-সংহার

বন্ধুরা, নিশ্চয়ই আপনাদের বোঝাতে পেরেছি লটকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে।লটকন অনেক সুস্বাদু একটি ফল। লটকন ফলটি খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। লটকন খেলে স্বাস্থ্যও মন ভালো থাকে। তাই আমাদের লটকনের মৌসুমে ফলটি পরিমাণমতো খেতে হবে। এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থেকে পোস্টটি করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url