OrdinaryITPostAd

বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ - শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম

বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ ও শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম - আসসালামু আলাইকুম। আপনি কি বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম জানতে ইচ্ছুক। তাহলে আজকের পর্বটি আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আজকের পোস্টে আমি আপনাদের বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম সম্পর্কে জানাবো। তাহলে দেরি না করে বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম সম্পর্কে সকল তথ্য বিস্তারিতভাবে জেনে নিন।

বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ - শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম
আপনি যদি বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে সম্পন্ন পোস্ট জুরে আমাদের সঙ্গে থাকুন। যাইহোক, আজকের পোস্টে আপনাদের সুবিধার্থে বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম আলোচনা করব।

পাসপোর্ট কি ?

পাসপোর্ট কিঃ বাংলাদেশী পাসপোর্ট বাংলাদেশী নাগরিকের জন্য একটি অফিসিয়াল দলিল বা নথিপত্র। জন্মসূত্র বা অভিবাসন সূত্রে বাংলাদেশের নাগরিক হয়ে থাকলে বাংলাদেশের সরকার বাংলাদেশের নাগরিক কে দিয়ে থাকেন। পাসপোর্ট আন্তর্জাতিক ভ্রমণের জন্য একজন ব্যক্তি জাতীয় পরিচয় পত্র বহন করেন। 

একটি পাসপোর্ট এর সাধারণত একজন বাহকের নাম তার জন্ম তারিখ ছবি স্বাক্ষর এবং যে কোন দেশের নাগরিক সবকিছু উল্লেখ করা থাকে। পাসপোর্ট ছাড়া অন্য কোন দেশে বা রাষ্ট্রে প্রবেশ করা যায় না। অন্য কোন দেশে বা রাষ্ট্রে যেতে হলে আপনাকে অবশ্যই পাসপোর্ট তৈরি করতে হবে। বাংলাদেশের পাসপোর্ট দ্বারা ভ্রমণে ইসরাইল বাদে অন্য সকল রাষ্ট্রের জন্য বৈধ।

পাসপোর্ট কাকে বলে ?

পাসপোর্ট কাকে বলেঃ পাসপোর্ট বলতে, আকারে ছোট একটি বই যাতে আপনি ও আপনার দেশ সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য এবং বিদেশ ভবনে অনুমতি তথাবলী উল্লেখ থাকে তাকে পাসপোর্ট বলে। পাসপোর্ট শব্দের উৎপত্তি ফরাসি ভাষা থেকে এসেছে।। বৈধভাবে যে কোন দেশে যেতে চাইলে প্রথমে অফিশিয়াল ভাবে যা প্রয়োজন পড়ে তার সকল তথ্য থাকে এই পাসপোর্টে। পৃথিবীর যেকোন রাষ্ট্রে যেকোন প্রান্তে একজন ব্যক্তির নাগরিকত্ব পরিচয় ও স্বীকৃতি দেয় পাসপোর্ট। পাসপোর্ট ছাড়া কোন দেশে যদি আপনি প্রবেশ করেন তবে অনুপ্রবেশ হিসেবে গণ্য করা হবে। যা আপনি নদী রেল কিংবা বিমান যে পথে যান না কেন।

প্রিয় পাঠক, আশাকরি পাসপোর্ট কাকে বলে তা জেনে গেছেন। আপনি আমাদের এই পোস্ট পড়ছেন তার কারণ অবশ্যই আপনার বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে সঠিক জায়গাতে এসেছেন। আজকের পোস্টে আমরা আপনাদের সাথে বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ সম্পর্কে বিস্তারিত সকল তথ্য আপনাদের জানাবো। তার সাথে বাচ্চাদের পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে সেই বিষয়গুলি সম্পর্কে আপনাদের সকল তথ্য তুলে ধরার চেষ্টা করেছি।

বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ - শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম

বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ - শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়মঃ আজকের পোস্ট এর মূল বিষয়ে চলে এসেছি। এখন আমি আপনাদের সামনে বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম বিস্তারিতভাবে আলোচনা করব। তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম সম্পর্কে জেনে নিন।

অনলাইন অথবা ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন ফটোকপি

অনলাইন অথবা ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন ফটোকপিঃ বর্তমান ডিজিটাল যুগ। ডিজিটাল যুগে সকল তথ্য কম্পিউটার তথ্যের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়ে থাকে। আর তাই আমরা সকলেই জানি হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন আর এখন ব্যবহৃত হয় না। বাচ্চাদের ই- পাসপোর্ট করার জন্য আপনার বাচ্চার বা শিশুর অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন তৈরি করতে হবে। তার জন্য আপনাকে বাচ্চার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে করা না থাকে। তাহলে পাসপোর্ট এর আবেদন করা যাবে না। তাই প্রথমে যদি আপনি অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করতে হবে। কারণ বাঁচার পাসপোর্ট করার জন্য জন্ম নিবন্ধনের প্রয়োজন হয়।

বাবা-মায়ের জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি

বাবা-মায়ের জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপিঃ বর্তমানে বাংলাদেশে পাসপোর্ট করা নিতে অনুযায়ী ৬ থেকে ২০ বছরের নাগরিকদের পাসপোর্ট করার ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন এর পাশাপাশি বাবা-মায়ের জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপির প্রয়োজন হয় বাবা-মায়ের ভোটার আইডি কার্ডের সাথে সন্তানের জন্ম নিবন্ধনের অবশ্যই মিল থাকতে হবে। একটু পার্থক্য থাকলে পাসপোর্ট আবেদন করা থেকে আপনি বাতিল হিসেবে গণ্য হয়ে যাবে।

থ্রি আর ছবি লাগবে

থ্রি আর ছবি লাগবেঃ বিশেষ করে আপনার ৬ বছরের নিচে শিশুদের পাসপোর্ট অফিসে ছবি তোলার ক্ষেত্রে একটু সমস্যা তৈরি হয়। তাই এক্ষেত্রে ল্যাপ পিন্ট করার থ্রি আর সাইজের ব্যাকগ্রাউন্ডের এক কপি ছবি আবেদনের ফর্ম এর সাথে জমা দিতে হবে। ছয় বছরের উপরে এই ছবির দরকার নেই।

পাসপোর্ট ফ্রি পরিশোধের পত্র

পাসপোর্ট ফ্রি পরিশোধের পত্রঃ আপনার যদি পাসপোর্ট করার ফি জমা দেওয়া থাকে এটি বাংলাদেশ সরকারের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যাবে। আপনাকে তার পূরণ করে আপনার নিকটস্থ যেকোনো সরকারী অথবা বেসরকারি ব্যাংকে জমা দেওয়া যাবে। চালান নেওয়ার পর ব্যাংক থেকে একটি গ্রাহক কপিসহ একটি রশিদ দেয়া হবে।

অনলাইনে ই-পাসপোর্ট করার জন্য আবেদন

অনলাইনে ই-পাসপোর্ট করার জন্য আবেদনঃ আপনাকে প্রথমে অনলাইনে পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করতে হবে। তারপরে আবেদন সম্পন্ন হলে একদম শেষে প্রিন্ট সামারি থেকে এক পৃষ্ঠায় অনলাইন পাসপোর্ট সিডিউল কপি ডাউনলোড করে নিতে হবে।

শিশুদের ই-পাসপোর্ট এর জন্য অনলাইনে আবেদন

শিশুদের ই-পাসপোর্ট এর জন্য অনলাইনে আবেদনঃ 
  • প্রথমে বাংলাদেশের ওয়েবসাইটে আপনারই পাসপোর্ট অনলাইনে পোর্টাল গিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার ইমেইল আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে।
  • আপনাকে অ্যাপ্লিকেশনে ক্লিক করতে হবে।
  • অতঃপর আবেদনকারীর  জেলা ও থানা নির্বাচন করতে হবে।
  • এরপর অপশনে আপনাকে আপনার বাচ্চার ব্যক্তিগত নিয়ম অনুযায়ী তথ্য পূরণ করতে হবে।
  • শিশুর জন্ম নিবন্ধন সনদপত্র অনুরূপ তথ্য সঠিকভাবে দিতে হবে।
  • আপনি যদি ১৮ বছরের নিচে কোন শিশুর জন্য শুধুমাত্র বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম অনুযায়ী ৫ বছর মেয়াদে ৪৮ পৃষ্ঠার পাসপোর্ট নির্বাচন করতে পারবেন।

বাচ্চাদের পাসপোর্ট করতে কি কি কাগজ লাগে

বাচ্চাদের পাসপোর্ট করতে কি কি কাগজ লাগেঃ প্রিয় বন্ধুরা আমরা ইতিমধ্যে আপনার বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ সম্পর্কে জানিয়েছি।আপনি যদি আপনার বাচ্চার পাসপোর্ট করতে চান তাহলে অবশ্যই বাচ্চার পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩  সম্পর্কে উপরে আলোচনা করা হয়েছে। এখন আমরা জানবো বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সম্পর্কে। তাহলে চলুন বাচ্চাদের পাসপোর্ট করতে কি কি কাগজ লাগে তা জেনে নেই।
  • প্রথমে অনলাইন-ই পাসপোর্টে আবেদনের কপি লাগবে।
  • তারপরে অনলাইন পাসপোর্ট সিডিউল কপি লাগবে।
  • ডিজিটাল এবং অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সনদপত্র লাগবে।
  • মাতা -পিতার জাতীয় পরিচয় পত্র ফটোকপি।
  • 3R আর সাইজের রঙিন ছবি লাগবে। 
  • এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি লাগবে।
  • পাসপোর্ট ফ্রি পরিশোধের পত্র লাগবে।

বাচ্চাদের পুলিশ ভেরিফিকেশন

বাচ্চাদের পুলিশ ভেরিফিকেশনঃ বাচ্চার বাবা অথবা মা যে কোন একজন যদি সরকারি চাকরিজীবী হয়ে থাকে NOC নিয়ে আসতে হবে। NOC দিয়ে পুলিশ ভেরিফিকেশন হয় না এবং সাধারণ ডেলিভারি আবেদন করলেও এক্সপ্রেস ডেলিভারি পাওয়া যায় যদি পুলিশ ভেরিফিকেশন এবং এক্সপ্রেস ডেলিভারি সুযোগ না নিতে ইচ্ছুক হয় কেউ তবে তার সন্তানের জন্য NOC নাও নিলেও চলবে।

পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে - সর্বনিম্ন কত বছর বয়সে পাসপোর্ট করা যায়

পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগেঃ আমাদের মধ্যে অনেকে আছে যারা বাচ্চাদের ই-পাসপোর্ট করার জন্য কত টাকা ফি দিতে হয়, পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে, সর্বনিম্ন কত বছর বয়সে পাসপোর্ট করা যায় এ সকল প্রশ্ন করে গুগলে সার্চ করে থাকে। তাদের সুবিধার্থে আজকের এই উত্তর জানানো হলোঃ ৫ বছর মেয়াদী ই-পাসপোর্ট প্রদান করা হয়। এবং এটি তার ফ্রি ৪৮ পৃষ্ঠা ৪০৫০ এবং ৬৪ পৃষ্ঠা ৬৩২৫ টাকা ভ্যাট সহ।

সাধারণত আমরা অপাপ্তবয়স্ক বলতে বুঝি ১৮ বছরে কম বয়সে ব্যক্তিকে। কিন্তু যদি পাসপোর্ট আবেদনের ক্ষেত্রে ১৫ বছরের কম বয়সে পাসপোর্ট আবেদনকারীদের শিশু বা অপ্রাপ্তবয়স্ক বিবেচনা করা হয়।

পাসপোর্ট রিনিউ করার নিয়ম ২০২৩

পাসপোর্ট রিনিউ করার নিয়মঃ সাধারণত পাসপোর্ট রিনিউ করার জন্য প্রথমত অনলাইনে আবেদন করতে হয়। তারপর নিকটস্থ পাসপোর্ট অফিসে আবেদনের প্রিন্ট কপি সহ প্রয়োজনীয় কাগজ সাবমিট করতে হয়। অতঃপর বায়োমেট্রিক তথ্য প্রদান এবং পাসপোর্ট ডেলিভারি স্লিপ সংগ্রহ করতে হয়।

বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ - শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম - সর্বশেষ কথা

প্রিয় বন্ধুরা, আপনারা যারা বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন তাদের জন্য উপরে এ সম্পর্কে বিস্তারিত পাওয়া আলোচনা করা হয়েছে। আপনি যদি শিশুদের পাসপোর্ট করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চান এবং আপনার বাচ্চার পাসপোর্ট করতে চান তাহলে আমাদের এই পোস্টটি আপনার জন্য অনেক উপকারী। কারণ আজকের এই পোস্টে আমরা বাচ্চাদের পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২৩ সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করেছি।

আশা করি আজকের পোস্টটি পড়ে আপনারা অনেক উপকৃত হবেন। আপনার কোন বন্ধু এবং বান্ধবী রয়েছে। যার কোন বা ছোট বাচ্চা বিদেশে যাবে আর পাসপোর্ট করার নিয়ম সম্পর্কে তার জানা দরকার রয়েছে। অবশ্যই আপনার বন্ধুদেরকে আমাদের এই পোস্টটি শেয়ার করবেন।

এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থেকে শেষ পর্যন্ত পোস্ট করার জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url